মতামত

শমী কায়সার, আপনি বাইরে সুন্দর, ভেতরে হয়তো অন্য!

টেলিভিশন নাটক দেখার জামানায় শমী কায়সার ছিলেন ভালোলাগার মতো একজন অভিনেত্রী। এই ভালোলাগায় আরও জ্বালানি যোগাত তার পারিবারিক পরিচিতি। অভিনয় থেকে সরে যাওয়ার পর সুযোগ হলেই শমী কায়সারের খোঁজ নিতাম।সর্বশেষ শমী কায়সার যখন সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য হতে চেয়েছিলেন, তখন ভেবেছি মায়ের মতো তাকেও হয়তো মূল্যায়ন করা হবে। হয়নি। তবে সে খবর রেখেছিলাম।

যাই হোক, প্রসঙ্গ ওটা নয়; প্রসঙ্গ সেই শমী কায়সারের অন্য রূপের। বুধবার আমাদের সেই শমী কায়সার ঢাকায় অনুষ্ঠিত এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের চোর সন্দেহে অপমান করেছেন। এজন্যে তিনি সকলের দেহ তল্লাশি পর্যন্ত করিয়েছেন বলে জেনেছি। এর মাধ্যমে ন্যক্কারজনক এক কাজ করেছেন তিনি। তার এই অশিষ্ট আচরণের নিন্দা ও প্রতিবাদ করছি।

শমী কায়সারের দুইটা মোবাইল ওই অনুষ্ঠানে হারিয়েছে বলে তিনি তার ভাষায় ‘শকড’ হতে পারেন, কিন্তু এর প্রকাশে ভদ্রতা বজায় রাখাই তো একজন ভদ্রলোকের কাজ। কিন্তু শমী কায়সার সেটা করেননি, উলটো তার লোকজন সাংবাদিকদের উদ্দেশে ‘চোর’ শব্দ উচ্চারণ করেছে বলে গণমাধ্যমের খবর। এটা সীমা লঙ্ঘন, এটা বেয়াদবি।

Image: youtube

অনুষ্ঠানস্থলে শমী কায়সারগং যখন সাংবাদিকদের এমন অপমান করছিলেন, তখন অন্য অনেকের মতো উপস্থিত ছিলেন আরেক সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি। তার দেহ তল্লাশি করা হয়েছে এমন খবর আসেনি কোথাও। জয়া আহসানসহ তাকে সন্দেহ করেননি শমী কায়সার। বাকিদের সন্দেহ করেছিলেন বলে দেহ তল্লাশি হয়েছে, যারা ছিলেন সন্দেহের বাইরে, তাদের তল্লাশি হয়নি।

পেশাগত সহকর্মীরা যখন অপমানিত হচ্ছিলেন, তখন মঞ্চেই ছিলেন তিনি। তিনি এর কোনো প্রতিবাদ করেছিলেন বলে জানা হয়ে ওঠেনি। অথচ কিছুদিন আগে ব্যারিস্টার মইনুল ইসলাম নামের একজন লোক যখন তাকে অপমান করেছিলেন, তখন সাংবাদিকেরাসহ অনেকেই প্রতিবাদ করেছিল। মাসুদা ভাট্টি হয়তো সেটা ভুলে গেছেন, অথবা নিজেরটাই দেখছেন; অন্যের অপমান দেখার সময় তার নাই!

সাংবাদিকদের সঙ্গে এমন দুর্ব্যবহারের পরও ধারণা করি কোনো সাংবাদিক নেতা এ নিয়ে কিছু বলবেন না। শমী কায়সার রাজনৈতিক পরিচয় সূত্রে মইনুলদের পক্ষের হলে কিছু বলতেন হয়তো!

শমী কায়সার, আপনার এহেন অশিষ্ট আচরণ সত্ত্বেও আপনি ভাগ্যবান। আপনি বাইরে সুন্দর, ভেতরে হয়তো অন্য!

Facebook Comments

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button