রকমারিরিডিং রুম

যে ৫টি কারণে পড়তে হবে সাদাত হোসাইনের বই!

এই সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় লেখকের তালিকা করতে বসলে সবার ওপরে যে নামটা থাকবে, সেটা নিঃসন্দেহে সাদাত হোসাইনের। তার লেখা আরশিনগর, অন্দরমহল, মানবজনম উপন্যাসগুলো তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে, পাঠকেরাও অকুণ্ঠ ভালোবাসায় সিক্ত করেছেন তাকে। অনেকে তো সাদাত হোসাইনকে খোদ হুমায়ূন আহমেদের সঙ্গেও তুলনা করছেন। তুলনা করার মতো সময় হয়তো এখনও আসেনি, তবে এটা তো সত্যি যে সাদাত হোসাইন পাঠকদের কাছে নিজের একটা ব্র‍্যান্ডভ্যালু তৈরি করতে সক্ষম হয়েছেন। বইমেলায় তার বই কেনা এবং অটোগ্রাফ নেয়ার জন্যে পাঠকদের লম্বা লাইন দেখলে সেই ব্যাপারে সন্দেহ পোষণের কোন উপায় থাকে না।

বইমেলায় কেন প্রতিবার সাদাত হোসাইনের বই বেস্টসেলার হয়? কেন রকমারিতে সর্বোচ্চ অর্ডার হয় সাদাত হোসাইনের বইগুলো? যে প্রকাশনী থেকে সাদাত হোসাইনের বই প্রকাশিত হয়, সেটার স্টলের সামনেই কেন সবচেয়ে বেশি ভীড় জমে? সেই প্রশ্নের উত্তরই জানার চেষ্টা করেছি আমরা।

  • সাদাত হোসাইনের ‘নির্বাসন’ কিনুন ঘরে বসেই- http://bit.ly/2WUAkrj

বিশাল ক্যানভাস, জীবনধর্মী গল্প:

সাদাত হোসাইনের লেখা পাঠককে আকর্ষণ করার অন্যতম কারণ এটাই। এই মূহুর্তে বাংলাদেশী লেখকদের মধ্যে বিশাল ক্যানভাসে গল্প বলার আগ্রহটা তুলনামূলক কমই দেখা যায়। সাদাত হোসাইন এখানে ব্যতিক্রম। আরশিনগর থেকে শুরু করে অন্দরমহল, মানবজনম কিংবা এবারের বইমেলায় মুক্তি পাওয়া নির্বাসন- প্রতিটা উপন্যাসেই তিনি ডিটেইলের প্রতি সবচেয়ে বেশি জোর দিয়েছেন, ধীরে ধীরে তৈরি করেছেন চরিত্রগুলোকে। পশ্চিম বাংলার বিখ্যাত সাহিত্যিক শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে এই জায়গাটাতে তার দারুণ মিল।

সহজপাঠ্য:

সাদাত হোসাইনের লেখার ধরণটা ভীষণ আকর্ষণীয়। ভাষার প্রয়োগে তিনি দারুণ সাবলীল, বাক্যগঠনে নেই কোন জড়তা। চরিত্রগুলোর সংলাপেও আঞ্চলিকতার প্রকাশটা তীব্র নয়, কাজেই তার লেখার স্টাইলের সঙ্গে মানিয়ে নেয়াটা খুব সহজ। গল্পকথক হিসেবেও তিনি চমৎকার, কাহিনীর জাল বোনার ব্যাপারটা যদি শিল্প হয়, সাদাত হোসাইন অবশ্যই উঁচুদরের একজন শিল্পী।

  • সাদাত হোসাইনের ‘নিঃসঙ্গ নক্ষত্র’ কিনুন এই লিংকে ক্লিক করে- http://bit.ly/2WUNC75
  • সাদাত হোসাইনের ‘মানবজনম’ কিনুন এই লিংকে ক্লিক করে- http://bit.ly/2WQNrKd

পাঠকের মনস্তত্ত্ব বোঝার ক্ষমতা:

এই ব্যাপারটা যে কোন লেখকের জন্যেই ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ। পাঠকের মনের ভেতরে ঢুকতে না পারলে লেখকের লেখার স্বার্থকতা আসে না। সাদাত হোসাইন সেই কাজটা দারুণ করতে পারেন। তার লেখার আরেকটা গুণ হচ্ছে আকর্ষণী ক্ষমতা- একবার ডুব দিলে চুম্বকের মতো টেনে ধরে রাখে পাঠককে। বিশেষ করে বড় উপন্যাস পড়ার অভ্যাস যাদের আছে, তারা সাদাত হোসাইনের লেখনীতে মুগ্ধ হবেনই।

কোয়ান্টিটি নয়, কোয়ালিটি:

সাদাত হোসাইনের বই প্রতি বইমেলায় একটা কি দুটোর বেশি আসে না কখনও। আগের বছরগুলোর দিকে তাকালেই এটা পরিস্কার। বছরজুড়ে তিনি বড় পরিসরে গল্প বোনেন, চরিত্রগুলোকে জীবন্ত করে তোলার পেছনে শ্রম দেন। এই পরিশ্রম আর মনযোগের পুরোটাই যখন একটা আরশিনগর কিংবা একটা মানবজনম পায়, তখন সেই উপন্যাসটা সুপাঠ্য হয়ে ওঠার জন্যে বাড়তি কোন কারণের দরকার পড়ে না।

  • সাদাত হোসাইনের ‘আরশিনগর’ কিনুন এই লিংকে ক্লিক করে- http://bit.ly/2WUsAWo
  • সাদাত হোসাইনের ‘অন্দরমহল’ কিনুন এই লিংকে ক্লিক করে- http://bit.ly/2WWKM1F

ধৈর্য্য এবং পরমত সহিষ্ণুতা:

লেখক সাদাত হোসাইন নয়, এটা মানুষ সাদাত হোসাইনের গুণ। জনপ্রিয়তার হাত ধরে নাকি সমালোচনাও আসে, তেমনই সাদাত হোসাইনের সমালোচকও আছেন অনেকে। কেউ হয়তো সাদাত হোসাইনকে ব্যাঙ্গ করছেন, কেউ তার বইয়ের দাম কেন এত বেশি সেই প্রশ্ন তুলছেন, কেউবা বলছেন মেলা শুরু হবার আগে কি করে বইয়ের দুটো মুদ্রণ শেষ হয়, এসব তো ধাপ্পাবাজী!

  • সাদাত হোসাইনের ‘কাজল চোখের মেয়ে’ কিনুন এই লিংকে ক্লিক করে- http://bit.ly/2WUBFyc
  • সাদাত হোসাইনের ‘আমি একদিন নিখোঁজ হবো’ কিনুন এই লিংকে ক্লিক করে- http://bit.ly/2WPdeSZ

ফেসবুকে বইয়ের গ্রুপগুলোতেও এমন নানারকমের মন্তব্য আসে। সাদাত হোসাইনকে সেসব মন্তব্য আমলে নিতে দেখেছি, নিজের অবস্থানের পক্ষে যুক্তি তুলে ধরতে দেখেছি ঠান্ডা মাথায়। গালাগালির জবাবে যখন একটা মানুষ ঘৃণা প্রকাশ না করে মার্জিত ভাষায় যুক্তিকে আঁকড়ে ধরছেন, তখন সেই মানুষটা বাকীদের কাছে জনপ্রিয় হবেন, এটাই তো স্বাভাবিক!

সাদাত হোসাইনের সকল বই পাবেন একসাথে এখানে- http://bit.ly/2WQHmxc

Comments
Tags

Related Articles

Back to top button