সিনেমা হলের গলি

২.০: হইহই কাণ্ড রইরই ব্যপার!

রজনীকান্ত-শঙ্কর জুটির আগের সায়েন্টিফিক ফিল্ম ‘রোবট’ ভারতের সিনেমা ইতিহাসেই আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল। দক্ষিনী একটা সিনেমা যে বলিউডে ঝড় তুলতে পারে, সেটা দেখিয়েছিল এই সিনেমা। রোবটের দেখানো পথ ধরে বাহুবলী তো পুরো ভারতেই আলোড়ন সৃষ্টি করেছে, ভেঙেছে অজস্র রেকর্ড। এবার শঙ্কর-রজনীকান্ত জুটি আসছেন রোবটের সিক্যুয়াল ২.০ নিয়ে, আরও একবার দক্ষিনী উন্মাদনায় ভেসে যাবার জন্যে প্রস্তত হচ্ছে পুরো ভারত। হবে না’ই বা কেন? সিনেমার বাজেট শুনলেই ভিরমী খেতে হবে, চারশো কোটি রুপী শুধু প্রোডাকশনেই খরচা হয়েছে, যেটা ভারতের সিনেমা ইতিহাসেরই সর্বোচ্চ!

দক্ষিনী সিনেমার সবচেয়ে বড় তারকা ধরা হয় রজনীকান্তকে, সবচেয়ে প্রভাবশালীও। রোবটে তার বিপরীতে নায়িকা ছিলেন বলিউড সুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই। এবার তার জায়গা নিয়েছেন অ্যামি জ্যাকসন। তবে চমকের জায়গাটা অন্যখানে, ২.০ সিনেমায় ভিলেনের রোলে আছেন বলিউড সুপারস্টার অক্ষয় কুমার! সম্ভবত ক্যারিয়ারের সবচেয়ে দারুণ সময় পার করছেন অক্ষয়, এই মূহুর্তে নায়কের আসন ছেড়ে ভিলেন হলে দর্শকেরা তাকে কিভাবে গ্রহণ করবেন, এমন একটা শঙ্কা ছিল। কিন্ত শঙ্করের পরিচালিত এই সিনেমার পোস্টার রিলিজের পর তুমুল আগ্রহের জন্ম নিয়েছে অক্ষয়ের চরিত্রটিকে ঘিরে। খিলাড়ি’কে অদ্ভুত এক রহস্যের চাদরে মোড়ানো একটা চরিত্র বলে মনে হয়েছে ভিলেনের গেটাপে, এক কথায় বলা চলে ভয়ঙ্কর সুন্দর!

গত অক্টোবরে সিনেমার অডিও রিলিজ হয়েছে দুবাইতে, মহা ধুমধাম করে। এই সিনেমার মিউজিকে ছিলেন প্রখ্যাত সঙ্গীত পরিচালক এ আর রেহমান। ২.০ এর মিউজিক কম্পোজকে নিজের ক্যারিয়ারের অন্যতম কঠিণ কাজ বলে স্বীকার করেছেন রেহমান। এই প্রথম কোন ভারতীয় সিনেমার মিউজিক লঞ্চের অনুষ্ঠান হলো দুবাইতে, সে’ও এক এলাহী কারবার! বারো কোটি রুপী খরচা হয়েছে শুধু এই অনুষ্ঠানে, হাজির ছিলেন অক্ষয়, রজনীকান্ত সহ সিনেমার প্রায় পুরো টিম। সঞ্চালনা করেছেন করণ জোহর, রানা ডজ্ঞুবতীর মতো তারকারা। বুর্জ পার্কে আয়োজিত হয়েছে অনুষ্ঠান, পারফর্ম করেছেন এ আর রেহমান, গানের তালে নেচেছেন রজনীকান্ত আর অ্যামি জ্যাকসন। দুবাইয়ের সর্বোচ্চ ভবন বুর্জ খলিফা ঢেকে গিয়েছিল অক্ষয় আর রজনীকান্তের মুখ অঙ্কিত পোস্টারে।

রোবট, ২.০, রজনীকান্ত, অক্ষয় কুমার, দক্ষিনী সিনেমা

২.০ এর প্রচারণার জন্যে বাজেট ধরা হয়েছে প্রায় পঞ্চাশ কোটি রুপী! এই টাকা দিয়ে অনায়াসে বলিউডে একটা তারকাসমৃদ্ধ কমার্শিয়াল সিনেমা বানিয়ে ফেলা যায়। চারশো/সাড়ে চারশো কোটি রুপী একটা দক্ষিনী সিনেমার বাজেট- শুনলে খানিকটা অবাকই হতে হয়। এই সিনেমার পুরো শুটিং হয়েছে থ্রিডি ক্যামেরায়, তাও একটা নয়, দুটো থ্রিডি ক্যামেরায় বন্দী হয়েছেন অভিনেতারা। দুনিয়ার নানা জায়গা থেকে মেধাবী টেকনিশিয়ানদের ভারতে উড়িয়ে এনেছেন শঙ্কর, টাকা ঢালতে কার্পণ্য করেননি কোথাও। হলিউডের কস্টিউম ডিজাইনার রোর রড্রিগুয়েজ কাজ করেছেন ২.০-তে, যিনি আগে ডেয়ারডেভিল এবং সুপারগার্লে কাজ করে এসেছেন। ভিএফএক্স অ্যানিমেশনের কাজ করা হয়েছে হলিউডি স্ট্যান্ডার্ড বজায় রেখে। ভিএফএক্স টিমের সদস্যরা এর আগে কাজ করেছিলেন ‘লাইফ অফ পাই’, ‘300’ এর মতো সিনেমায়। ইউক্রেনে একটা গানের শুটিং হবার কথা ছিল, কিন্ত রজনীকান্তের শারিরীক অবস্থার কারণে শিডিউল মেলানো যায়নি। পরে ভারতেই ইউক্রেনের মতো সেট বানিয়ে সেই গানের শুটিং শেষ করা হয়েছে!

উড়ো খবর আছে, ভিলেন রোলের জন্যে অক্ষয় প্রথম পছন্দ ছিলেন না। একদম শুরুতে পরিচালক শঙ্কর হলিউড সুপারস্টার আরনল্ড শোয়ার্জনেগারকে চেয়েছিলেন ভিলেন হিসেবে। কিন্ত তিনি সময় বের করতে পারেননি, পারিশ্রমিক নিয়েই বনিবনা হয়নি। পরে আমির খান, কমল হাসান, ঋত্বিক রোশান সহ আরও অনেকেই প্রস্তাব পেয়েছিলেন, কিন্ত শেষমেশ অক্ষয়ই পেয়েছেন ২.০’র এন্ট্রি টিকেট। শোনা গেছে বারোটি আলাদা আলাদা লুকে পর্দায় হাজির হবেন অক্ষয়, এজন্যে প্রচুর মেকাপ নিতে হয়েছে তাকে, শুটিঙের দিনে কয়েকঘন্টা সময় চলে যেতো মেকাপ বসানো আর ওঠানোর কাজে!

রোবট, ২.০, রজনীকান্ত, অক্ষয় কুমার, দক্ষিনী সিনেমা

রোবটে রজনীকান্তকে দুটো রোলে দেখা গিয়েছিল। এবারও একাধিক চরিত্রে তাকে দেখা যাবে বলে গুজব আছে! কঠোর গোপনীয়তার মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে ২.০ এর শুটিং। ফিল্মের সেটে মোবাইল আনার ব্যপারে কঠোর নিষেধাজ্ঞা ছিল, এমনকি কোন সেলফিও যাতে অভিনেতা-অভিনেত্রীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্ট করতে না পারেন, তেমন শর্ত রাখা ছিল চুক্তিতে। শুটিং চলাকালীন সময়ে মিডিয়ার সঙ্গে এই সিনেমা নিয়ে কথা না বলতে অনুরোধ করা হয়েছিল সবাইকে। একারণে ভেতরের খবর যা’ই মিডিয়ায় এসেছে, কোনটিরই তেমন বিশ্বাসযোগ্য সূত্র মেলেনি।

অজস্র কৌতুহল জমা হয়ে আছে সিনেমাপ্রেমীদের মনে। সেসব কৌতুহলকে নিবৃত্ত করতে পনেরোটি আলাদা ভাষায় ২.০ সিনেমাহলে মুক্তি পাবার কথা নভেম্বরে। সাড়ে পাঁচশো কোটি রুপী খরচ করাটা খানিকটা বিলাসিতা, বেশ ঝুঁকিরও ব্যপার বটে। তবে ২.০ নিয়ে দর্শকদের আগ্রহের পারদ যেভাবে চড়ছে, তাতে প্রযোজকেরা আশান্বিত হতেই পারেন। সাত হাজার স্ক্রীনে মুক্তি পাবার কথা রয়েছে ২.০’র। বাহুবলী বা দাঙ্গালকে টপকে ভারতের ইতিহাসে সবচেয়ে বেশী আয় করা সিনেমার তকমাটা শঙ্করের এই সিনেমা দখল করতে পারবে কিনা সেটা সময় বলে দেবে। তবে সিনেমার পেছনের দজ্ঞযজ্ঞ দেখে আশায় বুক বাঁধতেই পারেন রজনীকান্ত আর অক্ষয় ভক্তরা, বিশেষ করে দক্ষিনী সিনেমার ফ্যান যারা আছেন, তারা তো অবশ্যই!

Facebook Comments

Tags

Related Articles

Back to top button