সিনেমা হলের গলি

নুহাশ-প্রীতমের ‘খোকা’: মিউজিক ভিডিওর নতুন ধারা!

‘খোকা’ ‘খোকা’ বলে মায়েরা তাদের আদরের পুত্রকে ডাকে সাধারণত। কিন্তু, কদিন ধরে ‘খোকা’ এখন সবার মুখে। খোকার কথা আসলেই কয়েকদিন ধরে চোখ ভিজুয়ালাইজ করে আর মন চলে যায় একটা মিউজিক ভিডিওতে। প্রীতমের সুরে নুহাশের সৃজনশীল ডিরেকশনে যে মিউজিক ভিডিওতে এই মুহুর্তে আলোচনার শীর্ষে, তার নাম খোকা। মাত্র ছয়দিনে মিউজিক ভিডিওটি ইউটিউবে ১০ লাখ দর্শকশ্রোতা দেখে ফেলেছেন।

বলা হচ্ছে, খোকা একটি মিউজিক্যাল ফিল্ম। সিনেমার ফ্লেবার যে আছে দাবিটা মিথ্যে নয়। মিউজিক ভিডিওটি একটি গল্প হয়ে উঠেছে, যে গল্পের শুরুটা বেশ ইন্টেরেস্টিং। রহস্যময় একটি অকাল মৃত্যুর শোক প্রকাশ করতে দেখা যায় সিয়ামকে। তার বন্ধু প্রীতম রোড এক্সিডেন্টে মারা যায়। কিন্তু, লাশকাটা ঘরে আচমকা উঠে বসে নিহত লাশ। এমনই একটা ছমছমে রহস্যের মধ্যে শুরু হয় ভিডিও, আমরা জানতে পারি আসলে গল্পটা কি, কেন মৃত লাশটি ওভাবে জেগে উঠলো এবং তার প্রেমিকাকে খুঁজতে বের হলো, কেন তার এই ক্রোধ?

খোকা মিউজিক ভিডিও, প্রীতম, নুহাশ

গল্প বলার মধ্যেই একটা গান কিংবা গানটাই একটা গল্প, দুর্দান্ত একটা প্যাকেজ বলতেই হবে এটিকে। ‘খোকা’র আইডিয়া, প্রেজেন্টেশন, ভিজুয়ালাইজেশন সবকিছুতে নতুনত্ব, কোয়ালিটির জায়গা ছিল না আপোষ। মেধা, বাজেট, ভাল আইডিয়া এক হলে বাংলাদেশেও আন্তজার্তিক মানের যেকোনো কন্টেন্ট নির্মাণ সম্ভব, তার প্রমাণ হয়ে জ্বলজ্বল করছে ‘খোকা’। এই মিউজিক ভিডিওটি হয়ত একটা মাইলস্টোন হয়ে থাকবে এবং যারা ভাল কন্টেন্ট তৈরির চিন্তা করেন বা করেন না সবার জন্যেই একটা আইডিয়া হয়ে থাকবে ‘খোকা’। একটা ছেলে একটা মেয়ের পেছনে দৌড়াবে, মেয়ে ছ্যাকা দিবে, তারপর ছেলেটা মারা যাবে অথবা বিরহ করে বেড়াবে এই গতানুগতিক মিউজিক ভিডিও দেখতে দেখতে মিউজিক ভিডিওর প্রতি এক্সপেকটেশন কমে গিয়েছিল। সেই জায়গা থেকে ‘খোকা’ এটেনশন কেড়ে নিতে শতভাগ সমর্থ হয়েছে। গল্পের জায়গা থেকে বর্ণনা করলে এই গল্পটা শুনতে আহামরি লাগবে কিনা নিশ্চিত না, তবে যখন দৃষ্টি ভরে দেখবেন, তখনই আসলে মুগ্ধ হবার পালা শুরু হবে। যেখানে শেষ, একটা লাশ, কিছু শোকের বাণী, লাশকাটা ঘর ঠিক সেখান থেকেই গল্পের জন্ম..

খোকা মিউজিক ভিডিও, প্রীতম, নুহাশ

মিউজিক ভিডিওতে চমক হিসেবে রয়েছে স্টারদের ছড়াছড়ি। সাফা কবির আছেন, প্রীতম হাসানের প্রেমিকার রোলে। আছেন সদ্য নায়ক হিসেবে খ্যাতি পেতে শুরু করা সিয়াম, যিনি প্রীতম হাসানের বন্ধুর রোল প্লে করছেন। বাস্তবের ডাক্তার এজাজ মিউজিক ভিডিওতেও ডাক্তারি দিকটা সামলেছেন! আরেক চমক হয়ে এসেছেন ফেরদৌস ওয়াহিদ, তিনিও এই মিউজিক ভিডিওতে রোল প্লে করেছেন। ফলে এই কন্টেন্টের ডাইমেনশন বেশ বিস্তৃত হয়েছে, নবীনে প্রবীনে মিলেমিশে প্রজন্মের পালস বুঝে নতুন ধারার কন্টেন্টে তারা একত্রে কাজ করছেন, এটা বেশ দারুণ ব্যাপার।

আর নুহাশ এবং প্রীতম প্রতিবারই চমক সৃষ্টি করতে বেশ সিদ্ধহস্ত। এই দুই তরুণের পিতা নিজ নিজ ক্ষেত্রে বাংলাদেশে কিংবদন্তিতুল্য, মেধার লিগ্যাসি তো আছেই, সাথে এই দুই তরুণ নিজেদের একটা সৃষ্টিশীল দুনিয়া তৈরি করছেন নতুন করে, সেখানে তারা নিজেদের এক্সপ্লোর করছেন নির্দিষ্ট সীমারেখার বাইরে গিয়ে। দুইজন মিলে যখন কাজ করেন, তখন সেটা যে আরো নতুন মাত্রা পায় তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এর আগে নুহাশের ‘৭০০ টাকা’, ‘পিৎজা ভাই’ শর্টফিল্মে দুইজন কাজ করেছেন একসাথে। এবার ‘খোকা’তেও তারা একসাথে, যে গানের লিরিক লিখেছেন দুইজন মিলে, সুর দিয়েছেন প্রীতম, ডিরেকশন দিয়েছেন নুহাশ। পিউর এন্টারটেইনিং এই গানের একটা লাইন রীতিমতো ভাইরাল হয়ে পড়ছে ইতিমধ্যে – “আমার মা বলেছিলো খোকা প্রেম করিস না/ ভালো ছেলেদের কপালে ভালো মেয়ে জোটে না..”।

খোকা মিউজিক ভিডিও, প্রীতম, নুহাশ

খোকারা প্রেম করুক না করুক, মেয়ে জুটুক কপালে কিংবা আসছে বৈশাখ একলা কাটুক, সেটা বড় কথা না। সময়টা ভাল কাটাতে, একটু ভিন্ন স্বাদের নতুনধারার বিনোদন উপভোগ করতে ‘খোকা’ তো আছেই সব খোকাখুকিদের জন্যে! এমন মানের কন্টেন্ট যদি প্রচুর নির্মিত হতো, খোকাদের কি আর কিছু লাগত!

Facebook Comments

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button