খেলা ও ধুলা

পাকিস্তানের জন্যে গলা ফাটানোর আগে জেনে রাখুন…

আজ আপনার পেয়ারি পাকিস্তানের খেলা, তার ওপর পাকিস্তান মুসলমান দেশ। পাকিস্তানকে এই বিশ্বকাপে সাপোর্ট করা ফরজ মনে করছেন?

সিয়াম সাধনার একাত্তরের রমজান মাসে পানির বদলে প্রস্রাব খাইয়েছিলো আপনার পেয়ারি পাকিস্তানি ও তার দোসরেরা। ডালিম হোটেলে ইলেকট্রিক শক, পা উপরে তুলে টাঙিয়ে অমানবিক নির্যাতনের পর ভাগ্যগুনে বেঁচে যাওয়া ১৮ রমজানের ঘটনা বলেছিলেন ওমর আল ইসলাম।

ইমরান খানকে ভালোবাসেন, সে খেলা শেষে এখন রাজনীতি করে, কিন্তু আপনি খেলার সাথে রাজনীতি মেশান না। তবে ভাবছেন ধর্মের খাতিরে পাকিস্তানকে সাপোর্ট করতেই তো পারেন, ৯৭% মুসলমানের দেশ বলে কথা।

মুসলমান ধর্মের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই মাসের ২৩তম দিনে হাতিয়ায় ৬৯৭জন কে দড়ি বেঁধে লাইনে দাঁড় করিয়ে ব্রাশ ফায়ার করেছিলো। বাঙালিদেরকে কেবল গুলি করে হত্যা করেনি, দিন দুপুরে পাহাড়তলীতে একদিনেই হাজার হাজার বাঙালিকে জবাই করে হত্যা করেছিলো জল্লাদেরা। ২০শে রমজানের এই গণহত্যার সাক্ষী গোফরান, রেলওয়ে কর্মকর্তা আফছার উদ্দিন, উঠে এসেছে দলিলপত্রের ৮ম খন্ডে।

পবিত্র শবে কদরের দিনে হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিলো টাঙাইলের ছাব্বিশা গ্রামে, পুরো গ্রামে আগুন লাগিয়ে যাকে ইচ্ছে তাঁকে ধরে নির্যাতন, হত্যা চালিয়েছিলো। ওমর আলী ও সিরাজ আলী কুরআন পড়ছিলেন, সে অবস্থায় তাঁদেরকে হত্য করেছিলো, অসুস্থ সাজেদা বেগম হত্যাযজ্ঞ বন্ধে অনুরোধ করলে তাঁকে ও তাঁর ১৫ দিনের শিশু রাবেয়াকে আগুনে নিক্ষেপ করে হত্যা করেছিলো পাকিস্তানিরা।

একাত্তরের রমজান মাসের ২৪তম দিনে ভুরুঙ্গামারি ক্যাম্প থেকে উদ্ধার হওয়া আপনার-আমার মায়েদেরকে আটকে রেখে ধর্ষন করেছিলো আপনার পেয়ারি পাকিস্তানিরা, শুনতে খারাপ লাগছে না? তাঁদেরকে উলঙ্গ অবস্থায় রাখতো যাতে পরনের কাপড় দিয়ে আত্নহত্যা না করে। জ্বী, তখন রমজান মাস ছিলো, পুরো মাসেই প্রতিটি ক্যাম্পে বাঙালি নারীদের আটকে রেখে গণধর্ষন করতো, স্তন কেটে দিতো, যৌনাঙ্গে বিদ্যুৎ প্রবাহ দিয়ে আনন্দে আত্নহারা হয়ে যেত তারা।

এখনকার প্রজন্ম ‘ম্যারি মি আফ্রিদি’ প্লেকার্ড তুলে। তারা জানতে চান না একাত্তরের রমজান মাসে পাকিস্তানিরা যে কত মর্মান্তিকভাবে গণধর্ষন করতো বাঙালি নারীদেরকে তা বলে শেষ করা যাবে না। ম্যারি মি নয় এর চেয়ে আমাকে মেরে ফেলো বলতেন তাঁরা।

উপরে মাত্র কয়েকটি ঘটনার কথা বলা হলো, এরকম হাজারো মর্মান্তিক, অমানুষিক, নৃশংস ঘটনাবলী রেফারেন্স সহ উঠে এসেছে একাত্তরের রমজান: গণহত্যা ও নির্যাতন বইতে। পাকিস্তানকে মুসলমান দেশ হিসেবে ভালোবাসার আগে পবিত্র রমজান মাসেও তারা কী করেছিলো তা আপনাকে জানতে হবে যে আগে।

Facebook Comments

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button