সিনেমা হলের গলি

যে চারটি ওয়েব সিরিজ দেখে আপনি মুগ্ধ হবেন!

শিরোনাম পড়ে যারা ভাবছেন আজ কি লিখা নিয়ে এলাম, তাদের বলছি, একটু ধীরে সুস্থে বসুন। কারণ আজ পরিচয় করাব এমন একটি বিনোদনের সাথে যা আপনাকে মুক্তি দেবে স্টার জলসা বা স্টার প্লাসের হাত থেকে। প্রথমেই বলে নিচ্ছি, ওয়েব সিরিজ জিনিসটা কি? ওয়েব সিরিজ হলো অনেকটা ধারাবাহিক নাটকের মতো, তবে সেটা টিভিতে দেখতে হবে না, আপনি কনটেন্ট প্রোডিউসারের ওয়েবসাইটে দেখতে পাবেন অথবা ইউটিউবে তাদের চ্যানেল থেকে দেখতে পাবেন।

তাহলে এখন নিশ্চয়ই ভাবছেন, “এ আর নতুন কি?” আসলে ওয়েব সিরিজগুলোর মজাই হলো এদের কনটেন্ট। আমেরিকাতে ওয়েব কনটেন্ট নিয়ে কাজ শুরু হয়েছিল ২০০৮ সালে আর ভারতে শুরু হয়েছিল ২০১৩ সালে। আসল কথাই বলা হলো না, কেন এই ওয়েব সিরিজগুলো এত বেশি পপুলার, আর কেন আপনি নিজেই এদের ভক্ত হয়ে যাবেন। মূল কারণ হল এদের কনটেন্ট টিম। তাদের কনটেন্টগুলো তৈরি হয় আমাদের সমাজের বা চারপাশের ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলো কে কেন্দ্র করে। কনটেন্টগুলো দেখলে আপনি প্রথমেই ভাববেন এইগুলো তো আমাদের সাথেও ঘটে। এই সিরিজগুলোতে আপনি কখনোই দেখবেন না শাশুড়ি-বৌয়ের কুটনামি, আপনি দেখবেন না পরকীয়া– এগুলোতে আপনি দেখবেন স্টোরি আর স্টোরিটেলিংয়ের এক দারুণ প্রক্রিয়া!

ওয়েবসিরিজ নিয়ে আমি নিজে খুব বেশি এক্সসাইটেড ২০১৫ থেকে। কিন্তু অনেকেই হয়তো কোনটা দিয়ে দেখা শুরু করবো, এমন ভাবনায় ভুগছেন। তাদের জন্যই মূলত আজকের লিখা। তাহলে চলুন আপনাদের সাথে পরিচয় করিয়ে দেই সেই চারটি ওয়েব সিরিজের সাথে।

৪। Man’s World

IMDB Rating: 7.5/10

Gender Discrimination বা নারী পুরুষের বৈষম্য আমাদের বিংশ শতাব্দীর একটি বড় ইস্যু। প্রফেশনাল লাইফ থেকে শুরু করে পারিবারিক জীবন সব জায়গায় আপনি এই জেন্ডার ডিস্ক্রিমিনেশনের কিছু প্রভাব দেখতে পাবেনই। Man’s World সিরিজটি এমন ভাবে তৈরি করা হয়েছে যে, আপনি দেখলে প্রতিটা ঘটনা আমাদের প্রতিদিনের জীবনের সাথে মিলাতে পারবেন। কীভাবে জানেন? আপনি যদি একজন অ্যান্টি–ফেমিনিস্ট হয়ে থাকেন তাহলেই আপনি অনেক কিছু খুব ভালো বুঝতে পারবেন। ধরুন আপনি মারাত্মক রকমের অ্যান্টি ফেমিনিস্ট, কিন্তু কাল সকালেই আপনি মেয়ে হয়ে গেলেন। এরপর সমাজের অন্য মেয়েদের মতো চলাফেরা শুরু করলেন, তারা যেসকল সমস্যা, বাঁধার মুখে পরতে হয় আপনিও পরলেন। এবং ঠিক তখনই কিন্তু আপনি বুঝতে পারবেন, কীভাবে একজন মেয়ে আমাদের সমাজে প্রতিনিয়ত অবহেলিত হচ্ছে।

Man’s World এর লিংকঃ https://www.youtube.com/watch?v=8NgvxN9RJSg

Tripling

IMDB Rating: 8.9/10

আচ্ছা, এমন কে আছেন যিনি ঘুরতে ভালবাসেন না? এবং যদি সেই ঘুরাঘুরিটা হয় আপনার ভাই-বোনদের সাথে লম্বা কোন রোড ট্রিপ, তাহলে কেমন হবে? জানি অসাধারণ। ট্রিপলিং ওয়েব সিরিজটিও ঠিক এমনই একটি গল্প। ৩ ভাই-বোন হঠাৎ করেই এক হয়ে যায়। তারা জানেও না তাদের দেখা হবে, এমন কি তারা এও জানতো না যে তারা একটা রোড ট্রিপে বের হবে। কিন্তু সব কিছু ঘটনার পরিক্রমায় ঘটতে থাকে। তবে এই ওয়েব সিরিজের যেই ব্যাপার গুলো আপনাকে খুব বেশি আলোড়িত করবে তা হল, “ভাই-বোনের মধ্যে সম্পর্ক আসলে কতটা বন্ধুত্বপূর্ণ করা যায় যদি আমরা চাই”। আর যে ব্যাপারটা আরও বেশি ভালো লাগবে সেটা হলো, সিরিজের শেষ এপিসোডে বাবা তার ছেলে-মেয়েকে উদ্দেশ্য করে বলা কথা গুলো।

আমি জানি এই সিরিজটি শেষ করার পর আপনি আমাকে ধন্যবাদ না দিয়ে থাকতে পারবেন না!

Tripling-এর লিংকঃ https://www.youtube.com/playlist?list=PLTB0eCoUXEraZe3d7fJRdB-znE5D0cMZ7

Pitchers

IMDB Rating: 9.4/10

এটা হচ্ছে সেই ওয়েব সিরিজ যা পুরো ইন্ডিয়াতে ধুম ফেলে দিয়েছিল। এই ওয়েব সিরিজে অভিনয় করে প্রত্যেকে হয়ে গিয়েছেন বিশাল মাপের সেলিব্রেটি। জ্বী, পিচারস হচ্ছে সেই ওয়েব সিরিজের নাম। হয়তো অনেকেই দেখেছেন, কিন্তু সবাই এখনো দেখেননি নিশ্চিত। কারণ আমি যখনই কোন আড্ডায় জিজ্ঞেস করি খুব অল্প কিছু মানুষই বলে তারা দেখেছে। তাই নিজ দায়িত্বেই আমি এই সিরিজটি প্রচার করি। কারণ আমার নিজের অনেকগুলো ধারণা পরিবর্তন করে দিয়েছিল এই পিচারস নামক ওয়েব সিরিজটি।

ইঞ্জিনিয়ারিং পাশ করা ৩ জন, আর মার্কেটিংয়ে এমবিএ করা ১ জন ফ্রেন্ড মিলে স্বপ্ন দেখে নিজেদের একটি স্টার্টআপ বা ব্যবসার। কিন্তু সেই স্টার্টআপ করতে গিয়ে আসে কত শত রকমের বাধা। আর সেই বাধাগুলোকে কাটিয়ে উঠে কীভাবে তারা তাদের স্বপ্নকে জয় করে, সেই গল্পই বলেছেন কনটেন্ট টিম এই সিরিজে।

মজার ব্যাপার হলো এই চ্যানেল বা কনটেন্ট টিমের মালিক নিজে আইআইটি থেকে পাশ করে আমেরিকার চাকুরী ছেড়ে দিয়ে এই চ্যানেল ওপেন করেন এবং এই ওয়েব সিরিজ তৈরি করেছেন।

পারলে তো আপনাদের পুরো গল্পটাই এখানে লিখে দেই, কিন্তু না, আপনারা দেখুন কত সুন্দর করে একটা ওয়েব সিরিজ হতে পারে আর কীভাবে এই গল্পগুলো আমাদের সাথে মিলে যাচ্ছে!

Pitchers-এর লিঙ্কঃ https://www.youtube.com/watch?v=Bwu1x8hfEIo&t=451s

১। Humorously Yours

IMDB Rating: 9.6/10

আমাদের সবার এমন কিছু বন্ধু আছে যে কিনা সব সময় আমাদের আড্ডা জমিয়ে রাখে তার কথার ছলে। দেখবেন স্ট্যান্ডআপ কমেডি করার জন্য আমরা সবাই চাই তার পাশে বসে কিছু সময় কাটাতে। এই ওয়েব সিরিজটিও ঠিক তেমন একজন মানুষের, যে কিনা অনেকগুলো জোকসকে এক করে একটি স্ট্যান্ডআপ কমেডিকে ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে চায়। কিন্তু তার সামনে বাধা আসে অনেকরকম। সে ক্লান্তি নিয়ে সেই বাধা গুলোকে পাশ কাটিয়ে সামনে এগিয়ে যায়, ঠিক সে সময় তার পাশে আসে তার ভালবাসার স্ত্রী।

Humorously Yours-এর লিংকঃ https://www.youtube.com/playlist?list=PLTB0eCoUXErZxXbwCctNVSHFQugMj8zeo

ডিজিটাল কনটেন্ট নিয়ে আমাদের দেশেও  কাজ শুরু হয়েছে, কিন্তু কেউ এখন পর্যন্ত খুব ভালো কোন কনটেন্ট আসলে তৈরি করতে পারেনি। তবে মজার ব্যাপার হল কেউ কেউ চেষ্টা করছে, কিন্তু আমার কথা হলো টার্গেট অডিয়েন্স না বুঝে নাটক বানালেই কি কাজ হবে? ওয়েব সিরিজগুলো যদি সেই নাটকটাইপ হয়ে যায়, তাহলে কিন্তু সেটা বেশি দিন টিকবে না। ইন্ডিয়ান ওয়েব সিরিজগুলো হয়ে থাকে একেবারে ওদের প্রতিদিনের ঘটনাগুলোর মতো, মোটকথা যারাই দেখবে তারাই নিজের সাথে মেলাতে পারবে।

আর সিরিজগুলো দেখার সময় আপনি অবাক হয়ে তাকিয়ে থাকবেন তাদের নির্মাণশৈলী দেখে। শুধু ভাববেন এরা চাইলেই এখন ফিল্ম বানাতে পারে। মজার ব্যাপার হল টিভিএফ মানে পিচারস, ট্রিপলিঙ আর Humorously Yours এর প্রোডিউসার এখন বালাজি প্রোডাকশনের চেয়ে বেশি আয় করছে। ইন্ডিয়াতে তারা এখন এতটাই জনপ্রিয় যে, স্বয়ং শাহরুখ খান, ইরফান খান, আলিয়া ভাটরা এখন তাদের বিভিন্ন প্রোগ্রামে চলে আসে।

ওকে ভাই-বোন, আজ এই পর্যন্ত থাক। অনেক দিন পর লিখলাম। তবে আসা করছি আবার রেগুলার লিখব। আর হ্যাঁ, সিরিজগুলো দেখে আমাকে ধন্যবাদ না দিলে কিন্তু নোয়াখালী বিভাগ করে দিব! ভালো থাকবেন।

Facebook Comments

Tags

Related Articles

Back to top button