ইনসাইড বাংলাদেশযা ঘটছে

কারা এই পানির ট্যাংককে সাজালো এরকম করে?

সুবোধের গ্র‍্যাফিতি নিয়ে কিছুদিন আগে দারুণ হইচই হলো। ‘সুবোধ তুই পালিয়ে যা, সময় এখন পক্ষে না’ তো ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল ফেসবুকে। কে এই সুবোধ, কি তার পরিচয়, জানা যায়নি কিছুই। শুধু পাওয়া গিয়েছিল হাতে আঁকা কিছু স্থিরচিত্র, যেখানে খাঁচার ভেতরে বন্দী একটা সূর্য, আর দৌড়ে যাওয়া একজন মানুষের অবয়ব অনেকেরই দৃষ্টি আকর্ষণ করেছিল তখন। গুজব রটেছিল, সুবোধ নাকি ‘দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রে’ জড়িত, তাকে খুঁজছে পুলিশ! কয়েকবার তো খবর এসেছিল, সুবোধ সন্দেহে নাকি কাকে কাকে আটকও করা হয়েছে!

সুবোধ শেষমেশ রহস্য হয়েই থেকে গিয়েছে, সমাধান হয়নি কোন। সুবোধের দেখাও মেলেনি আর। তবে নতুন রহস্যের আগমন ঘটে গেছে ইতিমধ্যেই। ঢাকা শহরেই কে বা কারা ওয়াসার পানির ট্যাংকের বাইরের অংশটা রাঙিয়ে দিয়েছে হলিউডি সিনেমা স্টার ওয়ার্সের অনুকরণে। আর সেটাই নজর কেড়েছে অনেকের। গুলশানের ওয়েস্টিন হোটেলের পেছনের ওয়াসার পানির ট্যাংকটিকেই এই কাজের জন্যে বেছে নিয়েছে কেউ, সেটাকে সাজিয়েছে ভিন্নরূপে। আর সেই রূপটা দেখে সবার আগে মাথায় আসছে স্টার ওয়ার্সের নামটাই!

এই কাজ কে করেছে, কেন করেছে, কি উদ্দেশ্যে করা হয়েছে, কোনকিছুই তেমন পরিস্কার নয়। নেটিজেনদের মধ্যে কেউ কেউ দাবী করছেন বাঞ্জি স্টুডিও নামের একটা প্রতিষ্ঠানের কাজ এটা, তবে তাদের পক্ষ থেকে স্বীকারোক্তিমূলক কোন বক্তব্য এখনও প্রকাশ্যে আসেনি।

বাঞ্জি স্টুডিও কিংবা অন্য কেউ, যেই পানির ট্যাংকটাকে স্টার ওয়ার্সের আদলে রাঙিয়ে দিয়ে থাকুক, সেটার কারণটা কি, এটাই হচ্ছে আসল প্রশ্ন। নিছক মজা করার জন্যেই কি এমনটা করা হয়েছে? নাকি অন্য কোন উদ্দেশ্যে? ভিন্নধর্মী কোন প্রচারণা নয় তো?

ফেসবুকে পানির ট্যাংকের এমন অদ্ভুত এবং আকর্ষণীয় ছবি দেখে মুগ্ধ হয়েছেন অনেকেই, কমেন্টবক্সে সেই মুগ্ধতার প্রকাশও ঘটিয়েছেন কেউ কেউ। তবে বেশিরভাগ মানুষই ধোঁয়াশায় আছেন পুরো ব্যাপারটা নিয়ে। ঢাকা শহরে সুবোধের রিলোডেড ভার্সনের আগমন কি ঘটলো তবে?

Facebook Comments

Tags

Related Articles

Back to top button