সিনেমা হলের গলি

ভারতীয় বক্স অফিস কাঁপাচ্ছে ‘ভারত’!

বলা হয়, ভারতে ঈদ নাকি আসে সালমান খানের সিনেমার সাথে। তার ভক্তরা বলেন, চাঁদ দেখা গেলেই যে ঈদ হবে এমন কোন কথা নেই, সালমান খানের সিনেমা মুক্তি পেলে তবেই ঈদের আনন্দ শুরু হয় তাদের মনে। এই ঈদে ভক্তদের জন্যে সালমান নিয়ে এসেছেন তার নতুন সিনেমা ভারত। দর্শকও দারুণভাবে গ্রহণ করেছেন সিনেমাটাকে, বলিউডে এবছরের সর্বোচ্চ আয় করা সিনেমা হিসেবে নাম লেখাতে যাচ্ছে ভারত, মুক্তির প্রথম তিনদিনেই শুধু দেশের বাজার থেকে ভারতের আয় ৯৫ কোটি রূপির বেশি।

কোরিয়ান সিনেমা ‘Ode to My Father’ এর ভারতীয় সংস্করণ হচ্ছে ‘ভারত’। পরিচালনা করেছেন আলী আব্বাস জাফর। মূল চরিত্র ভারত (সালমান খান) এর নামানুসারেই রাখা হয়েছে সিনেমার নাম। প্রায় ছয়টা আলাদা আলাদা বয়সের চরিত্রে অভিনয় করেছেন সালমান খান, পঁচিশ থেকে পঞ্চান্ন, সব বয়সের অবতারেই তাকে দেখা গেছে তাকে। সুলতান এবং টাইগার জিন্দা হ্যায়- এর পরে আরও একবার সালমান-আলী’র জুটি জমেছে পর্দায়, দর্শকও সেটা লুফে নিয়েছে দারুণভাবে।

মুক্তির প্রথমদিনে ভারতের আয় ছিল ৪২ কোটি রূপি। সেইসঙ্গেই সালমান খানের ক্যারিয়ারে মুক্তির প্রথমদিনে সর্বোচ্চ আয় করা সিনেমা হয়ে গেছে ভারত। এর আগে প্রথমদিনে সালমানের যে সিনেমাটা সর্বোচ্চ আয় করেছিল, সেটার নাম ছিল প্রেম রতন ধন পায়ো। সেই রেকর্ড তোলপাড় করে দিয়েছে ভারত।

অথচ মুক্তির আগে নানামুখী সংশয় ছিল সিনেমাটার আয় নিয়ে। একে তো কোরিয়ান সিনেমার রিমেক, অরিজিনাল সিনেমাটা অনেকেরই দেখা। তার ওপর ভারত যেদিন মুক্তি পেলো, সেদিন ছিল বিশ্বকাপে ভারতের প্রথম ম্যাচ, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। ক্রিকেটপাগল একটা জাতি ভারত, তারা বিশ্বকাপের ম্যাচ রেখে কতটা হলমুখী হবে, সেটা নিয়ে ভাবনা তো ছিলই। তাছাড়া টিকেটের দামও তুলনামূলক কম রাখা হয়েছিল, সেটাও সিনেমার আয়ে প্রভাব ফেলতে পারে বলে ধারণা করেছিলেন অনেকে।

তবে সব শঙ্কাকে উড়িয়ে দিয়ে প্রথম দিনে দারুণ ব্যবসা করেছে ভারত। সালমান-ক্যাটরিনার জুটি আরও একবার দর্শকের মনে সাদরে আপ্যায়িত হয়েছে। ক্যাটরিনা কাইফের অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে সিনেমায়, ভালো অভিনয় করেছেন সুনীল গ্রোভারও। দ্বিতীয় দিনেও ব্যবসায়িক সফলতা বজায় রেখেছে সিনেমাটা, ৩১ কোটি রূপি আয় করে হিট হবার পথে একধাপ এগিয়ে গেছে। তৃতীয় দিনে ভারতের আয় ২২ কোটি রূপি, তিনদিন মিলিয়ে ভারতের মোট আয় দাঁড়িয়েছে ৯৫ কোটি রূপিতে। ঈদের ছুটির সঙ্গে মিলিয়ে লম্বা উইকেন্ড পাচ্ছে ভারত, শনি-রবিবার ব্যবসা আরও বাড়বে।

১২৫ কোটি রূপি বাজেটের সিনেমাটাকে হিট হবার জন্যে শুধু ভারতের বক্স অফিস থেকে আয় করতে হবে কমপক্ষে ১৫০ কোটি রূপি। সেই মার্জিনটা ভারত অনায়াসেই পেরিয়ে যেতে পারবে বলেই মনে হচ্ছে। বিশ্বজুড়ে ৬০০০ স্ক্রিনে মুক্তি পেয়েছে ভারত, এরমধ্যে শুধু ভারতেই ৪৭০০ স্ক্রিনে প্রদর্শিত হচ্ছে সালমান খানের এই সিনেমা।

শুধু যে দর্শকদের সন্তুষ্ট করেছে তা-ই নয়, ‘ভারত’ মন যুগিয়েছে সমালোচকদেরও। তরন আদর্শ যেমন ভারত দেখার পরে তার ওয়ান ওয়ার্ড রিভিউতে উল্লেখ করেছেন ‘স্ম্যাশ হিট’ বলে। অন্যান্য সমালোচকদের অনেকেই প্রশংসায় ভাসিয়েছেন ভারতকে, আবার মিক্সড রিভিউও আছে প্রচুর, আছে বেশকিছু নেগেটিভ রিভিউ। তবে সালমান খানের সিনেমা তো আর সমালোচকের রায়ে চলে না, চলে দর্শকের রায়ে। সেই দর্শকেরা সিনেমা হলে ভীড় জমাচ্ছেন ‘ভারত’ দেখার জন্যে, এটাই বড় কথা।

গতবছর সালমান, শাহরুখ, আমির- তিনজনের সিনেমাই বক্স অফিসে ভালো ব্যবসা করতে পারেনি। অনেকেই তখন ধরে নিয়েছিলেন, খান সাম্রাজ্যের অবসান বুঝি ঘটতে চললো! কিন্ত সেটা যে ভীষণ ভুল একটা ধারণা ছিল, ভারত দিয়ে সেটারই প্রমাণ যেন দিলেন সালমান খান।

Facebook Comments

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button