সিনেমা হলের গলি

দ্য পাওয়ার অফ SRK (Shah ‘Record’ Khan)!

একের পর এক মুভি প্রত্যাশার পারদ সীমার অনেক নিচে দিয়ে চলে যাচ্ছে তবুও কমছে না তাঁর জনপ্রিয়তা। এখনও ক্রমাগত বাড়ছে সেই জনপ্রিয়তা, আরও আরও মানুষ যেন নতুন করে তাঁর প্রতি মুগ্ধ হচ্ছে। কী আছে এই শাহ্‌রুখ খানে? কী আছে তাঁর সিনেমার ট্রেইলারে যে এতো মানুষ উৎসুক হয়ে দেখে? সবার মাঝেই কী একই অপেক্ষা যে কবে কিং খান বক্স অফিস এলোমেলো করে দেবেন? তা নাহলে তাঁর নতুন মুভি ‘জিরো’র ট্রেইলার এতো রেকর্ড গড়বে কেন? আবারও কেন প্রত্যাশার পারদ ‘চাঁদে’ তুলে দেবে? কী কী রেকর্ড গড়লেন রেকর্ড খান এই সিনেমার ট্রেইলার দিয়ে চলুন জেনে আসা যাক।

বাউয়া সিং ওরফে শাহ্‌রুখ তাঁর নতুন মুভি ‘জিরো’র ট্রেইলার তাঁর জন্মদিনে রিলিজ করবেন সেটি আগে থেকেই জানা ছিল। ফ্যানদের মাঝে তাই উৎসাহ, উৎকণ্ঠা ছিল কেমন হবে ট্রেইলার আর কখনই বা আসবে। অবশেষে অনেক জল্পনা কল্পনার পর ২ নভেম্বর বিকেলে প্রকাশ করা হয় ‘জিরো’ সিনেমার ট্রেইলার। ট্রেইলারে দেখা যায় বাউয়া সিং নামের এক বামুনকে। যার ভালোবাসা থাকে মোটর নিউরন ডিজিজে ভোগা অনুশকা আর যার প্যাশন থাকে ইন্ডিয়ার বড় সুপারস্টার ক্যাটরিনা। এই ৩ জনের পাগুলে প্রেমকাহিনী ও বাউয়ার মজে যাওয়া স্বভাব ট্রেইলারকে যেন সবার মনে কড়া নেড়ে পৌঁছে দেয়। তা না হলে কী এতো রেকর্ড হয়!

– ১ দিনে বলিউডের ইতিহাসের সকল প্ল্যাটফর্ম মিলিয়ে সবচেয়ে বেশিবার দেখা ট্রেইলার (৫৪ মিলিয়ন ভিউ)
– ২ দিনে যা বেড়ে দাঁড়ায় ৮৫ মিলিয়ন ভিউ।
– বর্তমানে ভিডিওতে ১৭ লাখ লাইক।
– এবং ৪ দিনেরও কম সময়ে যা সব প্ল্যাটফর্ম ১০০ মিলিয়ন পার করে গেছে যা অলটাইম রেকর্ড কোন বলিউড সিনেমার জন্য।

অর্থাৎ মানুষ দু হাত ভরে আগলে নিয়েছে বাউয়াকে। ট্রেইলারের রিপিট ভ্যালু এতোই বেশি যে বারবার দেখছে শাহ্‌রুখের ফ্যানরা পুরো দুনিয়া থেকে। আর দেখবেই বা না কেন! সেই পুরনো শাহ্‌রুখই তো। যে কিনা সিনেমায় নিজের জীবনকে একদম ভালোমতো যাপন করে নেয়। প্রেমে মজে যায় যে যখন তখন তাঁর চেয়ে ভালো প্রেম কেউ করতে পারে না। দু হাত দু দিকে দিয়ে আমন্ত্রণ জানায় প্রিয়াকে, হোক না সে হাত ছোট আর বড়। এই শাহ্‌রুখকেই তারপর ভালোবাসার জন্য বড় পরীক্ষা দিতে হয়, কিন্তু শাহ্‌রুখ সবসময়ই তা উতরে যায়।

আনন্দ এল রায়ের স্বভাবসুলভ হিউমার আর ইমোশন যেন ভরে ভরে ছিল সিনেমার ট্রেইলারে। অনুশকার এমন চরিত্র করার সাহস করা যেখানে তাকে প্যারালাইজড হয়ে থাকতে হবে সারাক্ষণ আর কাঁপা কাঁপা গলায় ডায়লগ দিতে হবে আর অন্যদিকে ক্যাটরিনা জাস্ট বিয়িং দ্য বেস্ট ভার্শন অফ হারসেলফ- শাহ্‌রুখের কাজ অনেকটাই সহজ করে দিয়েছে। আর ‘বাউয়ে’ তো মনে হচ্ছে সিনেমার পরে একদম আপন কেউই হয়ে যাবে। যেমন আপন হয়েছিল সুনীল, রাজ আর রাহুল চরিত্রগুলো। অজয়-অতুলের মেলোডিয়াস গানগুলো ট্রেইলারকে যেন প্রাণ দিয়েছে আরও। শাহ্‌রুখের লিপসিঙ্কে সুপারহিট গান তো চাই-ই চাই।

‘জিরো’ মুভির ট্রেইলার যেভাবে রেকর্ডের পর রেকর্ড ভেঙে যাচ্ছে তাতে হয়তো এভেঞ্জারসের সাথেই সামনে পাল্লা দিতে পারে। বলিউডের সর্বোচ্চ ভিউয়ের রেকর্ড থেকে পুরো বিশ্বজুড়েই সর্বোচ্চ ভিউয়ের বিশ্ব রেকর্ড গড়ার জন্য সময় তো যথেষ্ট পাচ্ছেই। কিন্তু ইনিশিয়াল হাইপ শেষ হলে কতোটুকু আর যেতে পারে ভিউ সেটাও দেখার বিষয়। ডোন্ট আন্ডারএস্টিমেট দ্য পাওয়ার অফ এ কমন ম্যান।

তবে দিনশেষে ট্রেইলার যত রেকর্ডই ভাঙুক না কেন, বাজিমাত করতে হবে সিনেমা দিয়েই। দর্শকের শাহ্‌রুখ খানের প্রতি যে প্রত্যাশা সেটি যদি পূরণ হয় তবে বক্স অফিসে সুনামি তো চলবেই পাশাপাশি ‘জিরো’ সিনেমা সিনেমা হিসেবে যে রেকর্ডগুলো গড়বে সেটির জন্য আলাদা জায়গা রেখে দিতে হবে। দর্শকদের তাই প্রত্যাশা তাদের চেনা শাহ্‌রুখকে আবার দেখার, গল্প ভালো হলে আর পারফর্মেন্স ভালো হলে শাহ্‌ রেকর্ড খান যে বড়দিনে তাঁর ফ্যানদের সবচেয়ে বড় গিফটটাই দেবেন তা আর বলে দেবার কী আছে! ততদিন জিরো বাউয়া সিংয়ের অপেক্ষায় থাকা যাক, অপেক্ষায় থাকা যাক তাঁর হিরো হবার জন্য…

জিরো, জিরো ট্রেইলার, শাহরুখ খান

আরও পড়ুন-

Comments

Tags

Related Articles