শ্যামলী সিনেমা হলে হালদা সিনেমার স্পেশাল একটা শো’য়ের আয়োজন করেছিল বাংলাদেশী সিনেমাভিত্তিক ইউটিউব চ্যানেল ‘থিয়েটার থ্রেড’। পরিচালক সহ সিনেমার কলাকুশলীদের অনেকেই আসবেন, এমনটা জানা ছিল আগে থেকেই। সেখানেই প্রথমবার নজরে পড়েছিল জাহিদ হাসানের নতুন লুক। গালভর্তি কাঁচাপাকা দাড়ি, মধ্যবয়স্ক ছাপটা চেহারায় স্পষ্ট। তবে তাতে যেন মানুষটার সৌন্দর্য্য আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। দেখতে তিনি বরাবরই আকর্ষণীয়, দাড়ি যেন সেই মুকুটে নতুন পালক যুক্ত করেছিল।

সেইসঙ্গে একটা বিশাল কৌতুহলও জন্ম নিয়েছিল। প্রিয় শিল্পীর এমন দাড়িপ্রীতির রহস্য কি? বড়সড় কোন প্রোজেক্ট নাকি? সিনেমা? নাকি অন্যকিছু? জাহিদ হাসান নিজেই সেই রহস্যভেদ করেছিলেন, জানিয়েছিলেন, কলকাতার একটা সিনেমায় কাজ করবেন, সে কারণেই এই নতুন চেহারা। তবে সেটা ছিল রহস্যের অর্ধেকটার উন্মোচন। বাকীটাও হয়ে গেল নতুন বছরের প্রথম প্রহরে। ভক্তদের অনেকেই খুশীর খবরটা জানেন না এখনও। মোস্তফা সরওয়ার ফারুকীর পরবর্তী সিনেমায় গুরুত্বপূর্ণ একটা চরিত্রে অভিনয় করছেন জাহিদ হাসান, সেই চরিত্রের জন্যেই এই দাড়ি রাখা!

গত অক্টোবরে মুক্তি পেয়েছিল ফারুকীর ‘ডুব; সিনেমাটি। তবে সেটা মুক্তির আগেই পরবর্তী প্রজেক্টের নাম ঘোষণা করেছিলেন পরিচালক। ‘শনিবার বিকেল’ বা ইংরেজীতে ‘স্যাটারডে আফটারনুন’ টাইটেলের এই সিনেমায় অভিনয় করার কথা ছিল নুসরাত ইমরোজ তিশা আর অস্কারে মনোনয়নপ্রাপ্ত ফিলিস্তিনী অভিনেতা ইয়াদ হুরানীর। এখন সেই তালিকায় যুক্ত হলো জাহিদ হাসানের নামও। পয়লা জানুয়ারী রাত বারোটা নাগাদ ফেসবুক লাইভে এই ঘোষণা দেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার স্বত্ত্বাধিকারী আবদুল আজিজ। এই সময় জাহিদ হাসানও ছিলেন তার সঙ্গে। বাংলাদেশ-ভারত-জার্মানী, এই তিন দেশের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত হবে শনিবার বিকেল।

নাটকে চুটিয়ে অভিনয় করলেও, সিনেমাপাড়ায় জাহিদ হাসান একদম অনিয়মিত। খুবই বেছে বেছে কাজ করেন; স্ক্রিপ্ট, পরিচালক, প্রযোজক, সিনেমার টিম সবকিছু পছন্দ হলে তবেই তিনি হ্যাঁ বলেন। আর এ কারণেই তার অভিনীত সিনেমার সংখ্যাও হাতেগোনা। শ্রাবণ মেঘের দিন, মেড ইন বাংলাদেশ, আমার আছে জল, প্রজাপতির পরে সর্বশেষ তাকে রূপালি পর্দায় দেখা গেছে তৌকির আহমেদের হালদা সিনেমায়। ফারুকীর সঙ্গে এর আগেও কাজ করেছেন তিনি, পলিটিক্যাল স্যাটায়ারধর্মী ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ সিনেমায় তার অভিনয় প্রশংসা কুড়িয়েছিল দর্শকের কাছে। দশ বছর বাদে এই জুটি আবারও ফিরছেন সিনেমা নিয়ে, দারুণ কিছু একটার প্রত্যাশা করতেই পারেন বাংলাদেশের সিনেমাপ্রেমীরা।

ফেসবুক লাইভে জাহিদ হাসান জানিয়েছেন, সিনেমার বিষয়বস্তু তার দারুণ পছন্দ হয়েছে। এ কারণেই ‘শনিবার বিকেল’-এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন তিনি। বাংলা-ইংরেজী দুই ভাষাতেই নির্মিত হবে সিনেমাটি, বাংলাদেশ অংশ থেকে প্রযোজনায় থাকবে জাজ মাল্টিমিডিয়া এবং ছবিয়াল। সিনেমাটির শুটিং ডিসেম্বরে শুরু হবার কথা থাকলেও, এখন শোনা যাচ্ছে ফেব্রুয়ারী থেকে হবে শুটিং।

১৯৯৯ সালে শ্রাবণ মেঘের দিন, তারপর নয় বছরের বিরতি দিয়ে ২০০৭ এ এলো মেড ইন বাংলাদেশ। পরের বছর আমার আছে জল করে আবার তিন বছরের বিরতি। ২০১১ সালে প্রজাপতির পরে আবার ছয় বছরের বিচ্ছেদ; ২০১৭ সালে হালদার পরে জাহিদ হাসান আর খুব বেশি অপেক্ষায় রাখেননি, নতুন সিনেমায় নাম লিখিয়েছেন বেশ দ্রুতই। জাহিদ হাসানের মতো দুর্দান্ত অভিনেতারা চলচিত্রে নিয়মিত হলে কাছাকাছি সময়েই ভালো ভালো সিনেমা উপহার পাবে দর্শকেরা, আর এর মধ্যে দিয়েই একটু একটু করে উন্নতির দিকে এগিয়ে যাবে আমাদের দেশীয় চলচ্চিত্র।

ছবি কৃতজ্ঞতা- থিয়েটার থ্রেড

Do you like this post?
  • Fascinated
  • Happy
  • Sad
  • Angry
  • Bored
  • Afraid

আপনার গুরুত্বপূর্ণ মতামত দিন-