খেলা ও ধুলারাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮

সৌদি আরবের ঈদের আনন্দ মাটি করে রাশিয়ার গোল উৎসব!

রাশিয়ার তৃতীয় গোলটার পরে টিভি পর্দায় দেখা মিললো তিন ক্ষমতাধরের। একজন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, অন্যজন সৌদি আরবের যুবরাজ প্রিন্স সালমান। মাঝখানে বসে থাকা টাকমাথার মানুষটার নাম জিওভান্নি ইনফান্তিনো, ফিফার প্রেসিডেন্ট। হাত নেড়ে নেড়ে প্রিন্স সালমান কিছু একটা বলছিলেন ইনফান্তিনোকে, পুতিনের মুখে তখন মুচকি হাসি। সেই হাসিটা সময়ের সাথে চওড়া হয়েছে শুধু। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচটা ফেবারিটদের মতো দাপুটে জয়ে শুরু করেছে স্বাগতিক রাশিয়া। সৌদি আরবকে প্রথম ম্যাচে তারা হারিয়েছে ৫-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে।

বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী দলগুলীর মধ্যে রাশিয়া আর সৌদি আরবের র‍্যাঙ্কিংই সবার নীচে। ম্যাড়ম্যাড়ে একটা ম্যাচ হবার কথা ছিল। কিন্ত বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ বলে কথা, প্রথম সবকিছুই তো স্পেশাল হয়! রাশানদের জন্যেও বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচটা তাই বিশেষ কিছু হয়েই রইলো।

বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮, রাশিয়া, সৌদি আরব

তবে সবচেয়ে স্পেশাল কাজটা করে ফেলেছেন ইউরি গাজিনস্কি। একাদশে জায়গা পেতে লড়াই করতে হয় তাকে, তরুণ এই খেলোয়াড় এখনও নিয়মিত নন দলে, সেই গাজিনস্কি কিনা ক্যারিয়ারের প্রথম গোলটা করলেন আজ, সেটা হয়ে গেল বিশ্বকাপের এই আসরের প্রথম গোলও! বারো মিনিটে সৌদি আরবের গোলমুখের তালা ভাঙলো রাশিয়া, সৌজন্যে গাজিনস্কি। কর্ণার থেকে গড়ে ওঠা দারুণ ছন্দোবদ্ধ একটা আক্রমণ, ডিবক্সের বাইরে থেকে উড়ে আসা বলে সময়মতো মাথাটা ছোঁয়ালেন গাজিনস্কি, বাকী কাজটা করে দিল গতি আর টাইমিং। বল জড়ালো জালে।

মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে এরপরে আরও চারবার এমন উৎসবে মেতেছে রাশান খেলোয়াড়েরা, উল্লাসে ফেটে পড়েছে গ্যালারি। ৫-০ ফলটা দেখে মনে হতে পারে রাশিয়া বুঝি একচেটিয়া আধিপত্য বজায় রেখে খেলেছে, অথচ বল দখলের লড়াইতে জয় ছিল সৌদি আরবেরই। কিন্ত নিজেদের অর্ধ ছেড়ে ওপরে ওঠার বাসনা সৌদি ফুটবলারদের মধ্যে দেখা গেছে খুব কমই। বরং যেন সময়ক্ষেপণ করতে পারলেই বাঁচেন তারা! এই সুযোগে তেড়েফুঁড়ে আক্রমণ চালিয়েছে রাশিয়া।

বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮, রাশিয়া, সৌদি আরব

জোড়া গোল করেছেন চেরিশেভ। জুবা আর গোলেভিন করেছেন বাকী দুটো গোল। রাশিয়ার প্রতিটা আক্রমণে চোখে পড়েছে পরিকল্পনার ছাপ, সেগুলো থেকেই পাঁচটা গোল আদায় করে নিয়েছে তারা। অন্যদিকে সৌদি আরবের খেলায় ছিল ছন্নছাড়া একটা ভাব, যেন মনটা পড়েছিল অন্য কোথাও। ম্যাচ জেতার জন্যে যে সৌদি আরব খেলেনি, এটা নিশ্চিত।

তবে এতে রাশান ফুটবলারদের দুর্দান্ত পারফরম্যান্সটা ফিকে হয়ে যাচ্ছে না মোটেও। বিশেষ করে ইনজুরি টাইমে করা গোল দুটোই ছিল চেয়ে দেখার মতো। বিশ্বকাপের সেরা গোলের দৌড়েও এরা থাকবে, এটা মোটামুটি নিশ্চিত। ডিবক্সের দুরূহ কোণ থেকে মাঝারী পাল্লার শটে লক্ষ্যভেদ করেছেন চেরিশেভ। শেষ মিনিটে ফ্রিকিক থেকে দারুণ ক্যারিশমায় বল জালে জড়িয়েছেন গোলোভিন, ডিবক্সের খানিকটা বাইরে থেকেই। প্রিন্স সালমানের চোখেমুখে তখন রাজ্যের আঁধার, পুতিনের মুখ হাসিতে উদ্ভাসিত!

বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১৮, রাশিয়া, সৌদি আরব

প্রথম ম্যাচের দারুণ এই জয়ে এ-গ্রুপের লড়াইটা জমিয়ে তুললো রাশিয়া। বাকী দুই দল উরুগুয়ে আর মিশরকে একটা কঠিণ বার্তাও দেয়া হয়ে গেল, বিনা যুদ্ধে নাহি দেব সূচাগ্র মেদিনি! রাশিয়ায় এসে অন্তত স্বাগতিকদের অবহেলা করা যাবে না, এটাও বুঝিয়ে দেয়া গেল। পাঁচটা গোলের সুবাদে গোল ডিফারেন্সেও ভালো একটা অবস্থান তৈরি করে নিলো দলটা, ক্রুশাল মোমেন্টে যেটা অনুঘটক হয়ে উঠতেই পারে।

সৌদি আরবে ঈদের চাঁদ দেখা গেছে, আগামীকাল সেখানে ঈদ। এর আগেরদিন এমন হারে ঈদের আনন্দটাই মাটি হয়ে গেল দলটার!

Comments
Tags
Show More

Related Articles

Close