‘রয়টার্স’ কী, তা নতুন করে আর বলার কিছু নেই। বিশাল এক আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা এবং তাদের ফটোসাংবাদিকেরা গোটা বিশ্ব চষে বেড়ান। ইতিহাসের সবচেয়ে বড় কিছু মুহূর্তের স্থিরচিত্র জনসম্মুখে এসেছে তাঁদেরই কল্যাণে। দরজায় কড়া নাড়ছে ২০১৭, তাই ২০১৬-এর বিদায়ক্ষণ উদযাপন করার জন্য রয়টার্স এ বছরের হৃদয়ছোঁয়া পনেরোটি ছবি প্রকাশ করেছে। রিও অলিম্পিক থেকে শুরু করে মার্কিন যুক্তরাস্ট্রের প্রেসিডেনশিয়াল টাউনহল বিতর্ক- অসাধারণ সব ছবি ফ্রেমবন্দী করেছেন তাঁরা। স্ক্রল করে ছবিগুলো দেখুন, কিছু মুহূর্তের জন্য হলেও অনুধাবন করতে পারবেন, ‘ছবি কথা বলে’

১.
ডেইরি ফার্মের একটি গাভী মুখ দিয়ে কালো বিড়ালের মাথায় মাতৃত্বের পরশ বুলিয়ে দিচ্ছে। দুই প্রাণীর কি দারুণ সহাবস্থান! ছবিটি তোলা হয়েছে গ্র্যানবি, কিউব্যাক, কানাডা থেকে ২৬ জুলাই, ২০১৬ তারিখে। 

২.পান্ডা এমনিতেই অসম্ভব আদুরে ও তুলতুলে স্বভাবের প্রানী! চেংডু পান্ডা রিসার্চ ও প্রজনন কেন্দ্রে জন্ম নেয়া ২৩ টি বড় পান্ডাকে প্রদর্শনী স্টেজে তোলা হয়, সেখান থেকে ছিটকে পরে যায় একটি! ছবিটি তোলা হয়েছে চেংডু, সিচুয়ান প্রোভিন্স, চীন থেকে ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ তে।  

৩.বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া আসর অলেম্পিকে ৫০০০ মিটার ট্র্যাকে দৌড়াচ্ছিলেন নিউজিল্যান্ডের নিকি হাম্বলিন। হঠাৎ করেই তাঁর পিছনে থাকা প্রতিযোগী যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাবেয় ডি’আগস্তিনো ক্র্যাম্প ইঞ্জুরড হয়ে ট্র্যাকে পড়ে যান। পুরুষ্কারের কথা না ভেবে দৌড় থামিয়ে নিজের কম্পিটিটরকে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন। ছবিটি তোলা হয়েছ, রিও অলম্পিকে থেকে ১৬ আগস্ট, ২০১৬ তে।

৪.চিলির ১৯৭৩ সালে এক সামরিক অভ্যুত্থানের বিপক্ষে অবস্থান করা একজন সক্রিয় প্রতিবাদী নারী দেশটির দাঙ্গা পুলিশ-এর চোখে চোখ রেখে প্রতিবাদ করছেন। ছবিটি তোলা হয়েছে সান্তিয়াগো, চিলি থেকে ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ তে।  

৫.ছবিতে দেখা যাচ্ছে, পাঁচ বছর বয়সী বিয়ন লন্ডনের একটি ব্যতিক্রমধর্মী প্রজাতির প্রজাপতির প্রদর্শনী শুরুর আগে হাসিমুখে পোজ দিচ্ছে। আচ্ছা, ছবিতে দুটি প্রজাপতিকে দেখতে অনেকটা পেঁচার মতো দেখাচ্ছে না? 

৬.ফ্রান্স সরকারের প্রস্তাবিত শ্রম আইন সংস্কারের প্রতিবাদে সেদেশের একজন বিক্ষোভকারী বিক্ষোভের সময় পুলিশের ছোঁড়া টিয়ার গ্যাস থেকে বাঁচার জন্য মাথায় পড়েছেন হেলমেট এবং হাতে নিয়েছেন টেনিস র‍্যাকেট! না জানি কবে থেকে বাংলাদেশেও এমনটা শুরু হয়! 

৭.স্লথ, পৃথিবীর অন্যতম ধীরগতির প্রাণীদের একটি। ইকুয়েডরের কিউবেদোর ট্রানজিট পুলিশ কর্মকর্তারা হাইওয়েতে টহলরত অবস্থায় প্রাণীটিকে রাস্তায় সড়ক প্রতিবন্ধক ধরে বসে থাকতে দেখেন। ছবির স্লথ প্রাণীটি তার সহজাত ধীর গতিতে হেটে রাস্তা পার হতে হতে ক্লান্ত! পরে অবশ্য পুলিশ একটি প্রেস রিলিজের মাধ্যমে প্রাণীটিকে সুস্থ অবস্থায় পশু চিকিৎসকের হাতে তুলে দেন। ছবিটি রয়টার্সের হাতে আসে ইকুয়েডর ট্রানজিট কমিশন থেকে।          

৮.ছবির মেয়েটি এসিড হামলায় বেঁচে যাওয়া ভারতী মডেল রেশমা কোরেশী। এসিড হামলার ভয়াবহতা জানাতে তিনি এমন মেকআপ নিয়েছিলেন ভারতীয় ডিজাইনার অর্চনা কোচ্চার করা ডিজাইনের পোষাকের ফ্যাশন শো-তে। ‘নিউইয়র্ক ফ্যাশন সপ্তাহ’ নামের এই ফ্যাশন শো-টি হয়েছিলো নিউইয়র্কের ম্যানহাটনে।

৯.একটি রিমোটচালিত প্লেন সুর্যের কাছ দিয়ে এমনভাবে উড়ছিল, মনে হচ্ছিল যেন কোনো জাদুকরী কায়দায় কেউ ঊড়ে যাচ্ছে! কী অদ্ভুত, তখন আবার হ্যালোইন উৎসবও চলছিল। ছবিটি ক্যালফোর্নিয়া থেকে তোলা ৩১ অক্টোবর, ২০১৬ তে।

১০. আনন্দ-বেদনার কি এক অদ্ভুত বৈপরীত্য! ছবিটি গ্রিসের একটি গ্রাম থেকে তোলা ২৭ মে, ২০১৬ তে।  

১১.ভালবাসা বুঝি একেই বলে! অ্যাডাম লেন্সিয়া, কানাডা পুরুষ হুইলচেয়ার বাস্কেটবল দলের খেলোয়াড় এবং জ্যামি জুয়েলস, মহিলা হুইলচেয়ার বাস্কেটবল দলের খেলোয়াড়। দুজনই প্রতিবন্ধী। চীনের সাথে কানাডা মহিলা হুইলচেয়ার দলের প্লে-অফ ম্যাচের পর জ্যামি জুয়েলসকে অ্যাডাম লেন্সিয়ার আলিঙ্গন। ছবিটি রিও প্যারালিম্পিক থেকে তোলা ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ তে।

১২.লড়াইয়ে দুটি দল, সহাবস্থান দুটি ভিন্ন সংস্কৃতির। ছবিটি ৭ আগস্ট, ২০১৬ তারিখে মিশর ও জার্মানির মধ্যকার রিও অলিম্পিকের বিচ-ভলিবল ম্যাচের সময় তোলা।  

১৩. টোকিওর একজন ব্যবসায়ী মুগ্ধ হয়ে সারি সারি চেরি ফুলের মুকুল দেখছেন। মনে মনে কী ভাবছেন, কে জানে! ছবিটি ১ এপ্রিল, ২০১৬ তে তোলা।

১৪.  প্রানীরাও মেতেছে হ্যালোইন উৎসবে! চীনে এক চিড়িয়াখানায় হ্যালোইন কুমড়া নিয়ে খেলছে একটি বেজী। ছবিটি তোলা হয়েছে ২৯ অক্টোবর, ২০১৬ তারিখে।

১৫.
বিশাল পাহাড়, উপর থেকে পড়ে গেলেই স-ব শেষ! এটি চীনের দর্শনীয় জায়গার একটি, ঝুকিপূর্ণ কিন্তু রোমাঞ্চকর সে পাহাড়ে দর্শনার্থীদের ভয়ডরহীন ঘুরে বেড়ানোর ছবিটি ১ আগস্ট, ২০১৬ তারিখে তোলা।

(তথ্যসূত্র: www.boredpanda.com)

 

আরও পড়ুনঃ

আপনি বাসের কোন ক্যাটাগরির প্যাসেঞ্জার?

গোলের খেলা ফুটবলের ‘প্রায়’ গোলমেলে ১০টি মজার তথ্য!

এই বুড়োদের তারুণ্যের কাছে মার খেয়ে যাবে যে কেউ!

মুক্তিযুদ্ধের এক অনবদ্য সেলুলয়েড দলিল: ‘ওরা ১১ জন’

আপনার কাছে কেমন লেগেছে এই ফিচারটি?
  • Fascinated
  • Happy
  • Sad
  • Angry
  • Bored
  • Afraid

আপনার গুরুত্বপূর্ণ মতামত দিন-

এই ক্যাটাগরির অন্যান্য লেখাগুলো