অবসান ঘটেছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর রিয়াল মাদ্রিদ অধ্যায়ের। গত নয় বছর স্পেনের ইতিহাসের সবচেয়ে সফল দলটির সাথে কাটানোর পর, নিজে থেকেই সম্পর্কের ইতি টানলেন পাঁচবারের ব্যালন ডি’অর জয়ী রোনালদো। তার নতুন ঠিকানা হতে চলেছে ইটালির জুভেন্টাস।

১০৫ মিলিয়ন পাউন্ড ট্রান্সফার ফি’র বিনিময়ে তাকে দলে ভিড়াচ্ছে তুরিনের বুড়িরা। তাই এখন থেকে রোনালদোকে আর কেউ শুধু রিয়াল মাদ্রিদের তারকা বলবে না। বলবে রিয়াল মাদ্রিদের ‘সাবেক’ তারকা। কিন্তু চাইলেই কি এতদিনের সম্পর্ককে এত সহজে মুছে ফেলা যায়? যায় না। তাই তো রিয়াল মাদ্রিদের অগণিত ভক্ত-সমর্থকের উদ্দেশে রোনালদো লিখেছেন এক আবেগঘন বার্তা। চলুন দেখে আসি কী বলেছেন সেখানে তিনি।

“রিয়াল মাদ্রিদ ক্লাবে ও এই মাদ্রিদ শহরে কাটানো বছরগুলো সম্ভবত আমার জীবনের সবচেয়ে আনন্দময় সময় ছিল। এই ক্লাব, এই ক্লাবের ভক্ত ও এই শহরের মানুষদের প্রতি আমার কেবল একটি অনুভূতিই রয়েছে, তা হলো কৃতজ্ঞতা। তাদের কাছ থেকে যে ভালোবাসা ও সমাদর আমি পেয়েছি, এর বিনিময়ে আমি তাদেরকে কেবল ধন্যবাদই জানাতে পারি।

কিন্তু তারপরও, আমি বিশ্বাস করি যে সময় এসেছে আমার জীবনের একটি নতুন অধ্যায়ের সূচনা করার। তাই আমি ক্লাবকে বলেছিলাম আমার ট্রান্সফার মেনে নিতে। আমি এভাবেই ভাবছি, এবং সবাইকে অনুরোধ করছি, বিশেষ করে আমার ভক্তদেরকে, যেন তারা অনুগ্রহ করে আমাকে বোঝার চেষ্টা করেন।

এই নয় বছর ধরে তারা ছিলেন এক কথায় অসাধারণ। এই নয় বছর আমার জন্য ছিল একদমই অন্যরকম। এই নয় বছর আমার জন্য ছিল অনেক রোমাঞ্চকর। কিন্তু সেই সাথে এই নয় বছর আমার জন্য অনেক কঠিনও ছিল। কেননা রিয়াল মাদ্রিদ হলো এমন একটি ক্লাব যাদের চাহিদা অনেক বেশি। তবু আমি জানি যে এখানে আমি ফুটবলকে যেই ব্যতিক্রমীভাবে উপভোগের সুযোগ পেয়েছি, তা আমি কোনোদিনই ভুলতে পারবো না।

খেলার মাঠে ও ড্রেসিংরুমে আমি দারুণ কিছু সতীর্থকে পেয়েছি। আমি দর্শকদের ভালোবাসার উষ্ণতা অনুভব করতে পেরেছি। এবং সবাই মিলে আমরা টানা তিনটি, ও পাঁচ বছরে চারটি, চ্যাম্পিয়নস লিগ জয় করেছি। তাছাড়া ব্যক্তিগতভাবেও, আমার সন্তুষ্টির অনেক জায়গা ছিল। কারণ এই অসাধারণ ক্লাবটিতে থাকাকালীনই আমি চারটি ব্যালন ডি’অর ও তিনটি গোল্ডেন বুট জিতেছি।

রিয়াল মাদ্রিদ শুধু আমারই নয়, আমার পরিবারেরও হৃদয় জয় করে নিয়েছে। এজন্য আমি অন্য যেকোনো সময়ের চেয়েও বেশি করে একটি কথা বলতে চাই, আর তা হলো ‘ধন্যবাদ’। ধন্যবাদ এই ক্লাবকে, ক্লাবের প্রেসিডেন্টকে, ডিরেক্টরদেরকে, আমার সতীর্থদেরকে, সকল কোচকে, চিকিৎসককে, ফিজিওকে, এবং অভাবনীয় কিছু স্টাফকেও, যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের কারণে আমার যা কিছু অর্জন, সেগুলো সম্ভব হয়েছে।

আরও একবার নিরন্তর ধন্যবাদ ক্লাবের ভক্তদেরকে, এবং ধন্যবাদ স্প্যানিশ ফুটবলকেও। এই নয় বছরে আমি আমার চোখের সামনে অসামান্য সব খেলোয়াড়কে খেলতে দেখেছি। আমার শ্রদ্ধা রইল তাদের সকলের প্রতি।

আমি প্রতিফলিত করেছি অনেক কিছুই, এবং আমি জানি এখন সময় এসেছে একটি নতুন চক্র শুরু করার। আমি চলে যাচ্ছি ঠিকই, কিন্তু এই শার্ট, এই ব্যাজ, আর এই সান্তিয়াগো বার্নাব্যুকে সবসময়ই আমার নিজের বলে মনে হবে, সে আমি যেখানেই থাকি না কেন।

আবারও ধন্যবাদ সবাইকে। আর হ্যাঁ, ঠিক যেমনটি আমি নয় বছর আগে প্রথমবার আমাদের স্টেডিয়ামে প্রবেশ করে বলেছিলাম – হালা মাদ্রিদ!” 

Comments
Spread the love