সিনেমা হলের গলি

নোবেল স্ট্রাইকস ওয়ান্স এগেইন!

ওপার বাংলার জনপ্রিয় রিয়েলিটি মিউজিক শো ‘সারেগামাপা’র মূল পর্বে গান গেয়ে ব্যাপক আলোচিত মাইনুল আহসান নোবেল। শুরুটা হয়েছিল জেমসের ‘বাবা’ গান দিয়ে। তারপরই স্যোশাল মিডিয়ায় রীতিমতো আলোড়ন তুলে নোবেলের পারফরম্যান্স। মজার ব্যাপার হলো, রক গানের প্রতি টান থাকলেও নোবেল কিন্তু সেই অনুষ্ঠানের আগে কখনোই ‘বাবা’ গানটি গাননি৷ প্রথমবারের মতো ‘সারেগামাপা’য় যখন গাইলেন, তার দরাজ কণ্ঠের জাদুতে মুগ্ধ হলো সবাই। বিচারকরাও যেন মোহগ্রস্থ হলেন, নোবেল পেয়েছিলেন স্ট্যান্ডিং ওভেশন।

এর মধ্যে আবার ছোটখাটো একটা বিতর্কের মধ্যেও পড়তে হয়েছিল নোবেলকে৷ নোবেলকে এখন কলকাতায় থাকতে হচ্ছে, থাকতে হবে আরো ছয়-সাত মাস হয়ত। তাই ফেসবুক প্রোফাইলে ঠিকানা পালটে বর্তমান ঠিকানা লিখেছিলেন কলকাতা। শুধু এই কারণেই, কেউ কেউ নোবেলকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করেছে। নোবেল তার ফেসবুক পেজ থেকে ব্যাখ্যা দিয়েছেন, কেন তাকে ঠিকানা দিতে হয়েছে কলকাতা।

“ভাই-বন্ধুরা, আপনাদের সবার উদ্দেশ্যে কিছু কথা। আপনারা হয়তো অনেকে একটি বিষয় লক্ষ করবেন, আমার ফেসবুক-এর About me-তে ‘Lives in Kolkata’ লেখা রয়েছে। এটা আমার ফেসবুক আইডির Authentication-এর জন্য করতে হয়েছে। কারন, আমি বর্তমানে Zee Bangla-র তত্তাবধায়নে কলকাতায় অস্থায়িভাবে অবস্থান করছি এবং আগামি ৬-৭ মাস আমাকে এখানেই থাকতে হবে। আমার IT-consultant Rajib Hasan Shawon আমাকে জানান, যে আমার IP-Address কলকাতার, কিন্তু আমার info-তে যদি ‘Lives in Dhaka’ দেওয়া থাকে ফেসবুক এটাকে ‘suspicious activity’ হিসেবে নিবে। তাই আমাকে info-টা চেঞ্জ করতে হয়েছে। আপনারা হয়তো অনেকে বিষয়টা নিয়ে ব্যাথিত হয়েছেন। আমি আন্তরিকভাবে দু:খিত, এ ব্যাপারে আপনাদের আগে থেকে কিছু জানানো হয়নি। আমি আশা করি আপনারা এই বিষয়টা ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আমি আপনাদের আছি, আপনাদেরই হয়ে থাকতে চাই। অসংখ্য ভালবাসা আপনাদের জন্য।”

যদিও বর্তমানে নোবেলের আসল ফেসবুক একাউন্ট যেখানে এক লাখের অধিক ফলোয়ার আছেন, সেটি ডিএক্টিভেট করা৷ “বাবা” গানটি পারফর্ম করার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় নোবেলের ভক্তসংখ্যা হঠাৎ করেই বেড়ে যায় একলাফে। নোবেলের নিজের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল ‘Noble Man’ এক লাখ সাবস্ক্রাইবার পায়, যেখানে নোবেলের যে গান, সেখানেই ভক্তরা ছুটে যান এমন একটা অবস্থা। এর মধ্যেই পাগল ভক্তরা কিংবা কিছু সুযোগসন্ধানী নোবেলের নামে অনেকগুলো ফেইক ফেসবুক একাউন্ট খুলে ফেলে৷ এই একাউন্টগুলোর কারণে বিব্রত হতে হয় নোবেলকে৷

মাইনুল হাসান নোবেল, Mainul Ahsan Noble, সারেগামাপা, নেক্সটটিউবার, সংগীত শিল্পী

তবে, সারেগামাপায় প্রতিটি পারফরম্যান্সের পর ভক্তরা তাকে যেভাবে অভিনন্দিত করেন সেই খবর নিশ্চয়ই পৌঁছায় নোবেলের কাছে৷ এই রিয়েলিটি শো’তে দ্বিতীয়বার তিনি করেছিলেন জেমসই গাওয়া আরেকটি গান “ভিগি ভিগি”। একসময়ের টপচার্টে থাকা হিন্দি এই গান গাওয়ার পর নোবেল আবারো আলোচনায় এসেছিলেন।

আর এবার সর্বশেষ, আবারো কলকাতা মাতালেন সেই সঙ্গে ভাসালেন সকল ভক্তদের, বিখ্যাত ব্যান্ড মাইলসের “ফিরিয়ে দাও” গানটি গেয়ে। নোবেল স্ট্রাইকস ওয়ান্স এগেইন! টানা তৃতীয়বারের মতো বিচারকদের কাছ থেকে পেলেন গোল্ডেন গিটার। অভূতপূর্ব ভঙ্গিমায় বাংলাদেশের রক গানকে উপস্থাপন করে যাচ্ছেন অসাধারণ প্রতিভাবান এই শিল্পী।

সারেগামাপা’র এই পর্বে নোবেলকে আরো বেশি সাবলীল লাগছিল। উপস্থাপক যীশু সেনগুপ্ত নোবেলকে ডাকলেন আমাদের রকস্টার সম্ভোধন করে। নোবেল আসলেন স্টেজে। যীশু বাংলাদেশের ভাষা বৈচিত্র্যের প্রশংসা করে নোবেলকে জিজ্ঞেস করলেন, “তুমি কি বাঙ্গাল ভাষা শেখাবে আমাকে?” নোবেল জানালেন শেখাবেন। তারপর নোবেলের কাছে জানতে চাইলেন, তিনি কোন ভাষায় কথা বলেন। নোবেল বললেন, তার বাড়ি যেহেতু গোপালগঞ্জ এবং বসবাস ঢাকায় তাই দুইটা ভাষার প্রভাবই আছে তার কথায়। উপস্থাপক গোপালগঞ্জের ভাষা শুনতে চাইলেন খানিকটা।

মাইনুল হাসান নোবেল, Mainul Ahsan Noble, সারেগামাপা, নেক্সটটিউবার, সংগীত শিল্পী

নোবেল উদাহরণ দিলেন, খেতে খেতে, স্নান করতে করতে বেলা গেল, ঘুমাতে পারলাম না এটাকে গোপালগঞ্জের ভাষায় শোনাবে এমন “নাতি খাতি বেলা গেল শুতি পারলাম না।” বিচারকরা শুনে বেশ আমোদিত হলেন, মজা পেলেন। নোবেল জানালেন শিল্পী খালিদের এরকম লিরিকে একটা গানও আছে। বিচারকরা আগ্রহ নিয়ে বললেন, গানটা তারা শুনতে চান।

তারপরই শুরু হলো, নোবেলের তৃতীয়বারের মতো স্টেজ পারফর্মেন্স। শান্ত সৌম্য শুরু, তারপর “ফিরিয়ে দাও আমার এই প্রেম তুমি..” বলে যখন টান দিলেন জমে গেল অনুষ্ঠান। রক গানে মুগ্ধ হয়ে বিচারকরা আবারো গোন্ডেন গিটার প্রেস করলেন নোবেলের জন্য!

মাইনুল হাসান নোবেল, Mainul Ahsan Noble, সারেগামাপা, নেক্সটটিউবার, সংগীত শিল্পী, Noble Man, Next Tuber

নোবেলের এমন সাড়াজাগানো পারফর্মেন্সের পর তাকে ঘিরে আশাবাদ আরো বাড়ছে। পরের পর্বে আবার কোন গান দিয়ে মাতিয়ে দেবেন গানের মঞ্চ এখন সেই অপেক্ষায় নোবেলভক্তরা।

আরও পড়ুন-

Comments

Tags

Related Articles