অনুপ্রেরণার গল্পগুচ্ছতারুণ্য

আমি শুধু আঁকতে জানি, কষ্টগুলো ঢাকতে জানি

ছোটবেলায় কমিকস পড়া শেষে সেগুলো অনুকরণের চেষ্টা। সেখান থেকে ফাস্ট ফরওয়ার্ড করে এখন বাংলাদেশের জনপ্রিয় রম্য ম্যাগাজিন উন্মাদের সহকারী সম্পাদক! বিভিন্ন পত্রিকার জন্য এঁকেছেন, করেছেন বইয়ের প্রচ্ছদ। তার আঁকা কার্টুন প্রদর্শিত হয়েছে দেশ ছাপিয়ে বিদেশবিভূঁইয়েও। মোরশেদ মিশুর এগিয়ে চলার গল্পটা ভীষণ অনুপ্রেরণার তো বটেই। সব ছাপিয়ে সম্প্রতি মোরশেদ মিশু একটি বিশেষ সিরিজের জন্য ‘উন্মাদ উৎসব’-এ জিতেছেন প্রথম পুরস্কার, তার ভাষায় যেটি অস্কারের চাইতে কম কিছু না! কী নিয়ে সেই সিরিজ? ‘দ্য গ্লোবাল হ্যাপিনেস চ্যালেঞ্জ সিরিজ’ সম্পর্কে মিশু eআরকি-কে বলেছেন,

‘মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধে আক্রান্ত মানুষের ছবিগুলো মাসখানেক আগে ফেসবুকে হঠাৎ বেশি ছড়িয়ে পড়েছিলো… ছবিগুলো এতটাই মর্মান্তিক যে দেখতে পারতাম না, এড়িয়ে যেতাম। কিন্তু চোখ এড়িয়ে গেলেও, মাথায় থেকে যেতো! এমন ছবি আমি কেন, কেউই দেখতে চায় না! এক রাতে ঘুমাতে পারছিলাম না… মনে হলো কিছু একটা করা দরকার। তখন চিন্তা করলাম, এই ছবি আমি দেখতে চাই না… তাহলে কী দেখতে চাই? দেখতে চাই হাসিমুখ… সেই চিন্তা থেকেই প্রথম ছবিটা আঁকা। আঁকা শেষে অনিক ভাইকে (ছড়াকার অনিক খান) নক করলাম সিরিজটার একটা নাম আর দুই লাইন ছড়ার জন্য। ‘দি গ্লোবাল হ্যাপিনেস চ্যালেন্জ’ নামটা অনিক ভাইয়েরই দেয়া, সেই সাথে ‘আমি শুধু আঁকতে জানি, কষ্টগুলো ঢাকতে জানি’ ছড়ার এ লাইন দুটোও তিনি দেন। পরবর্তী সময়ে এই পুরো সিরিজটার মেনটর হিসেবে অনিক ভাইকে পাশে পেয়েছি সবসময়!’    

মোরশেদ মিশুর ‘দ্য গ্লোবাল হ্যাপিনেস চ্যালেঞ্জ সিরিজ’-এর ছবিগুলো দেয়া হলো এগিয়ে চলোর পাঠকদের জন্য- 

#১

#২

#৩

#৪

#৫

#৬

#৭

#৮

 

Comments

Tags

Related Articles