ইশ, আমাদের দেশেও যদি এমন হতো!

Ad

কল্পনা করুন তো, যদি আপনার অফিসের বা কারখানার কাজের সময়ের পরিমাণ ৮ ঘন্টা না হয়ে ৬ ঘন্টা হতো, তাহলে কেমন হতো? পরিবার, বন্ধু বা নিজেকে দেয়ার মত সময়ের পরিমাণটা কত বেড়ে যেত তাহলে! কাজ থেকে খিটখিটে মেজাজ নিয়ে নিশ্চয়ই কাউকে ফিরতে হতো না!

আধুনিক মনোবিজ্ঞানীরাও বলেন, অতিরিক্ত কাজের চাপ মানুষের প্রোডাক্টিভিটি ও ক্রিয়েটিভিটি কমিয়ে দেয়। এমনকি অতি কাজের চাপে মানুষের মৃত্যুও হতে পারে। কিন্তু এইসব বাংলাদেশের মালিকপক্ষকে কে বোঝাবে? অবস্থাটা এমন, আমরা নিজেরা নিজে থেকে কোন আইডিয়া বাস্তবায়ন করতে পারিনা, ইউরোপ আমেরিকাতে কিছু দেখা গেলে তারপর সেটা অনুকরণ করা শুরু করি! তবে শুধু খারাপটা না করে যদি ভালগুলো অনুকরণ করা হতো, তাহলে অতিঅবশ্যই সবার আগে সুইডেনে চালু করা নতুন কাজের নিয়মটাকে করা উচিত।

সুইডেনে, সারা দেশে অফিশিয়ালি সমস্ত অফিসের কাজের সময়সীমা ছয় ঘন্টা করে দেয়া হচ্ছে। উল্লেখ্য, কর্মীদের বেতন থাকবে আগের মতই। কিছু কিছু কোম্পানীতে ইতিমধ্যে এই নিয়ম চালু করা হয়েছে।

FILIMUNDUS নামের এক মোবাইল গেম ডেভেলপার কোম্পানী প্রথম এই কালচারের সুচনা করে। তাদের বোর্ড অফ ডিরেক্টর ভেবে দেখলেন, আট ঘন্টার কাজের সময় কর্মীদের অদক্ষ করে তুলছে। এতক্ষন ধরে মনোযোগ এবং প্রোডাক্টিটি ধরে রাখা বেশির ভাগ মানুষের জন্যই অসম্ভব। এতক্ষন ধরে কাজ করার ফলে কর্মীদের বার বার বিরতি নিতে হয়, ফলাফল- প্রচুর সময়ের অপচয়।

তাই তারা সিদ্ধান্ত নিলো কাজের সময় ছয় ঘন্টা করে দেবে। এতে দেখা গেল, কর্মীরা ছয় ঘন্টায় আট ঘন্টার সমপরিমাণ কাজই করতে পারছে! শুধু তাই নয় কিছু কিছু ক্ষেত্রে তাদের দক্ষতাও বেড়েছে। তাদের কর্মশক্তি আরো বেড়েছে, নিজেদের জন্য বেশি সময় দিতে পারছে। সব মিলিয়ে তারা আগের চেয়ে সফল ও সুখী।

FILIMUNDUS-এর দেখাদেখি আরো কিছু মেডিকেল ক্লিনিক,কার সেন্টার এই নিয়ম চালু করে দেখেছে এবং সেখানেও যথারীতি পজিটিভ ফলাফল পেয়েছে। ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকা বলছে, সারা দেশেই এই নিয়ম চালু করা হবে শীঘ্রই।

বাংলাদেশে গার্মেন্টস থেকে শুরু করে বিভিন্ন সেক্টরে শ্রমজীবি মানুষগুলোর রক্ত চুষে অর্থ আয় করছে মালিকপক্ষেরা। পৃথিবীর কোথাও না কোথাও তো শুরু হচ্ছে। বাংলাদেশেও কেউ একজন এগিয়ে এসে বিড়ালের গলায় ঘন্টা বেঁধে দিবে, এমন আশা কি আমরা করতে পারি না?

(তথ্যসূত্র- brightside.me)

1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (2 votes, average: 5.00 out of 5)
Loading...
Ad

এই ক্যাটাগরির অন্যান্য লেখাগুলো

আপনার গুরুত্বপূর্ণ মতামত দিন-

Ad