খেলা ও ধুলারাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮

মিস করা যাবে না গ্রুপ পর্বের যে পাঁচটি ম্যাচ!

আর মাত্র দুই দিনের অপেক্ষা। তারপরই শুরু হতে চলেছে ফুটবলের মহাযজ্ঞ, দ্য গ্রেটেস্ট শো অন আর্থ- রাশিয়া বিশ্বকাপ ২০১৮। এক মাস ধরে চলবে এই উৎসব। তার মধ্যে ৩২ দলের অংশগ্রহণে গ্রুপ পর্বেই অনুষ্ঠিত হবে ৪৮টি ম্যাচ। ফুটবলপ্রেমীদের নিশ্চয়ই ইচ্ছা থাকবে সবগুলো ম্যাচেরই শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দেখার। কিন্তু তাই কি কখনও সম্ভব! এমনিতেই মানুষের জীবনে হাজারটা কাজ। তার উপর আবার বিশ্বকাপ শুরুর পর প্রথম কয়েকটা দিন থাকবে ঈদের আমেজ। সেই সময়ে আর সব কাজ ফেলে কেবল টিভির সামনে বসে খেলা দেখতে থাকাটা ঝামেলাই বটে। তাছাড়া টানা এক মাস রোজার পর আবারও ফিরে আসবে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। সেই জীবনের সাথে ফের মানিয়ে নেয়াটাও বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের সব ম্যাচ দেখার পথে একটা বড় বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে।

সবমিলিয়ে খুব স্বাভাবিক ভাবেই আমাদের মধ্যে অনেকেই এবারের বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের সব কয়টি ম্যাচ দেখার সুযোগ পাবেন না। সে না হয় না’ই পেলেন। সব ম্যাচ কি আর দেখা জরুরী? এই যেমন ধরুন এবারের বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচটির কথাই। স্বাগতিক রাশিয়া লড়বে সৌদি আরবের বিপক্ষে। প্রথম ম্যাচ বলে এটির একটা আলাদা আকর্ষণ হয়ত আছেই। কিন্তু তাই বলে কি এই ম্যাচ না দেখলে বাংলাদেশী ফুটবলপ্রেমী দর্শকদের খুব বেশি কিছু যাবে আসবে? সহজ উত্তরঃ না। একে তো গ্রুপ পর্বের ম্যাচ, তার উপর আবার এমন দুইটি দলের খেলা যে দুই দলের একটি খেলোয়াড়ের নামও জানে না অন্তত ৯৫% বাংলাদেশী। তাই এই ম্যাচ দেখাও যা, না দেখাও তাই। আবার এই গ্রুপ পর্বেই এমন কিছু ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে, যেগুলোর আকর্ষণ নক-আউট পর্বের কোন ম্যাচের চেয়েও কম নয়। সেইসব ম্যাচ মিস দেয়ার প্রশ্নই আসে না।

তাই চলুন আগে থেকেই আমরা জেনে নেই এবারের বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের এমন পাঁচটি ম্যাচ সম্পর্কে, যেগুলো কোনমতেই মিস দেয়া যাবে না।

  • পর্তুগাল বনাম স্পেন। গ্রুপ বি। ১৫ জুন, রাত ১২টা

বিশ্বকাপ শুরুর মাত্র একদিনের মাথায় আমরা দেখা পাব এবারের আসরের প্রথম আন্তর্জাতিক ডার্বির। এই দুই আইবেরিয়ান প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যকার যেকোন ম্যাচই অনেক বিশাল ব্যাপার। আর সেটি যদি হয় বিশ্বকাপের মত টুর্নামেন্টে, তবে তো কথাই নেই। এই দুই দলের মধ্যকার ৩৭তম ম্যাচ হতে চলেছে এটি, এবং সম্ভবত দুই দলের ইতিহাসের সবচেয়ে প্রতিযোগিতাপূর্ণ ম্যাচও বটে। কারণ গুণে-মানে দুই দল আগে কখনোই এতটা কাছাকাছি ছিল না।

এই মুহূর্তে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল ইউরোপের সেরা দল। বিশ্বকাপে তাই ফেভারিটের তকমা না থাকলেও তাদের লক্ষ্য অবশ্যই থাকবে ইউরো ২০১৬ এর ফলাফলেরই পুনরাবৃত্তির। অন্যদিকে গত বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বেই বাদ পড়া স্পেনও নিজেদের দারুণভাবে গুছিয়ে নিয়েছে গত চার বছরে। ২০১০ সালে জেতা বিশ্বসেরার মুকুট পুনরুদ্ধারে মরিয়া থাকবে তারা। এই ম্যাচ ড্র হলে ভিন্ন কথা। কিন্তু কোন এক দল যদি এই ম্যাচে জেতে, তবে তাদের গ্রুপ সেরা হওয়া যেমন অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে যাবে, ঠিক তেমনই বিপদের মুখে পড়ে যাবে বিজিত দলটি। পরের দুই ম্যাচের অন্তত একটিতে তাদের জিততেই হবে পরবর্তী রাউন্ডে যাওয়ার জন্য। তাই নেহাতই গ্রুপ পর্বের ম্যাচ হলেও কেউই কাউকে ছেড়ে কথা বলবে না।

  • আর্জেন্টিনা বনাম আইসল্যান্ড। গ্রুপ ডি। ১৬ জুন, সন্ধ্যা ৭টা।

আগের ম্যাচটি রোনালদোর এই আসরের প্রথম ম্যাচ। ঠিক তেমনই এবারেরটি সময়ের সেরার প্রশ্নে তাঁর সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসির প্রথম ম্যাচ। তবে গত বিশ্বকাপেই মেসির সামনে সুবর্ণ সুযোগ ছিল কেবল সময়ের সেরাই নয়, সর্বকালের সেরা কে তা নিয়ে যে বিতর্ক রয়েছে সেই বিতর্কেরও অবসান ঘটিয়ে দেয়ার। আর্জেন্টিনাকে তিনি তুলেছিলেন ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে। সেই ম্যাচে যদি শেষ হাসি হাসত তাঁর দল, তবে হয়ত আজ সন্দেহাতীত ভাবেই তাঁকে অনেকেই মেনে নিতেন সময়ের, এবং সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় হিসেবে। কিন্তু শুধু তাই-ই যে হয়নি তা নয়। পরপর দুই বছর তাঁর দল কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠেও শেষমেষ হেরে গেছে। তাই রোনালদো যেখানে একটি মেজর আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের গর্বিত বিজয়ী, মেসির সেখানে অর্জনের খাতা একদমই শূণ্য। সেই মেসির পক্ষে কি সম্ভব হবে এবারের বিশ্বকাপটি জিতে নিয়ে অতীতের সকল দুঃখমোচন করার? সেই মিশনেরই শুরু হবে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে।

২০১৮ বিশ্বকাপ, গ্রপ পর্ব, আর্জেন্টিনা, পর্তুগাল, স্পেন

আইসল্যান্ডের কাছেও কিন্তু এই ম্যাচের মর্যাদা কোন অংশে কম নয়। সাড়ে তিন লাখেরও কম মানুষ বাস করে যে দেশটিতে, তারাই কিনা ২০১৬ ইউরোর কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে চমকে দিয়েছিল সবাইকে। কিন্তু সচরাচর যেমনটি হয়ে থাকে, নিন্দুকেরা তাদের সেই শেষ আটে ওঠাকে দিয়ে দিয়েছিল ফ্লুকের খেতাব। কিন্তু এরপর রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেই তারা সক্ষম হয়েছে অনেকাংশে নিন্দুকদের নীরব করে দিতে। এবং এখনও হাতে গোণা যে ক’জন নিন্দুক রয়েছে, তাদের মুখও নিশ্চিতভাবেই বন্ধ হয়ে যাবে, যদি তারা আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে দিতে পারে, কিংবা নিদেনপক্ষে একটি পয়েন্টও কেড়ে নিতে পারে। মেসির দলের তাই একদমই ঠিক হবে না ভাইকিংদের খাটো করে দেখার। নয়ত তাদেরও পরিণতি হবে ইংল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া বা তুরস্কের মতই।

  • জার্মানী বনাম মেক্সিকো। গ্রুপ এফ। ১৭ জুন, রাত ৯টা।

মেক্সিকোর বর্তমান স্কোয়াডটিকে বলা হচ্ছে তাদের ‘সোনালী প্রজন্ম’। এই স্কোয়াডটিতে রয়েছে এমন অসাধারণ সব প্রতিভা যার দেখা আগে কখনও মেলেনি মেক্সিকোর ফুটবল ইতিহাসে। এবং সেজন্যই গত কয়েক বছর কনকাকাফ অঞ্চলের ফুটবলে ছড়ি ঘুরিয়ে আসতে পেরেছে তারা। কিন্তু জার্মানী একদমই ভিন্ন জিনিস। আজকাল জার্মানীর প্রতিটি প্রজন্মকেই বলা চলে তাদের ‘সোনালী প্রজন্ম’। এবং বর্তমান বিশ্বসেরারা সাম্প্রতিক কিছু প্রস্তুতি ম্যাচে যতই ছন্নছাড়া থাকুক না কেন, র‍্যাংকিংয়ে এখনও কিন্তু তারা সবার উপরেই। বিশ্বকাপের সোনালী ট্রফিটি এবারও নিজেদের কাছেই রেখে দেয়ার সবচেয়ে বড় দাবিদারও তারাই।

২০১৮ বিশ্বকাপ, গ্রপ পর্ব, আর্জেন্টিনা, পর্তুগাল, স্পেন

বলাই বাহুল্য, এই ম্যাচের জয়ীই এগিয়ে থাকবে গ্রুপ এফের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ে। সবাই তো মোটামুটি জার্মানীকেই ধরে নিয়েছে সম্ভাব্য গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবে। কিন্তু যদি দেখা যায় এই ম্যাচে জার্মানী হোঁচট খেল… আবারও বলছি, যদি… সেক্ষেত্রে মেক্সিকোও হয়ে যেতে পারে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন। আর সেক্ষেত্রে এল ত্রিদের কপালে বিশ্বকাপের গত কয়েক আসর ধরে শেষ ষোলো পেরোতে না পারার যে অভিশাপ সেঁটে আছে, সেটিও মুছে যেতে পারে এবারই। তবে তার জন্য তাদেরকে আশা করতে হবে প্রস্তুতি ম্যাচগুলোতে দেখা যাওয়া ফিকে ও মলিন জার্মানদের।

  • পোল্যান্ড বনাম কলম্বিয়া। গ্রুপ এইচ। ২৪ জুন, রাত ১২টা।

যদি আপনি আন্তর্জাতিক ফুটবলের একজন নিয়মিত অনুসারী না হন, তবে নিশ্চিতভাবেই বলে দিতে পারি যে পোল্যান্ড ও কলম্বিয়ার মধ্যকার এই ম্যাচটিও যে সেরা পাঁচের তালিকায় ঠাঁই পেতে পারে, সে সম্ভাবনা ঘুণাক্ষরেও আপনার মনের কোণে উঁকি দিয়ে যায়নি। কিন্তু যদি আপনি সত্যিই একজন ‘অ-মৌসুমী’ ভক্ত হয়ে থাকেন, তবে অবশ্যই আপনার জানার কথা যে বিশ্বের অন্যতম সেরা দুইটি দল না হয়েও সামর্থ্যের দিক থেকে পোল্যান্ড আর কলম্বিয়া কতটা সাদৃশ্য ও সাযুজ্যপূর্ণ। তাই বিশ্বকাপের অন্য সব ম্যাচের জন্যই আপনি সম্ভাব্য একটি বিজয়ী দল বেছে নিতে পারলেও, এই ম্যাচে তা করতে পারবেন না সহজে। করতে গেলে গলদঘর্ম অবস্থা হবে আপনার।

২০১৮ বিশ্বকাপ, গ্রপ পর্ব, আর্জেন্টিনা, পর্তুগাল, স্পেন

ফুটবল তো তখনই তার সবচেয়ে মোহনীয় রূপ ধারণ করে যখন সেখানে থাকে অনিশ্চয়তা, জয়ী হবে কে তা আগে থেকে আন্দাজ করা যায় না। আর এমন ফুটবল শুধু নির্দিষ্ট দলের সমর্থকদেরই হৃৎস্পন্দন নিয়ে ছেলেখেলা করে না, বরং ভালোলাগার আবেশ বুলিয়ে দিয়ে যায় নিখাদ-নিরপেক্ষ ফুটবলপ্রেমীদের মনেও। আপনি যদি তেমনই একজন হয়ে থাকেন, ফুটবলের প্রতি ভালোবাসা যদি সঞ্চালিত হয় আপনার রক্তনালীতে, তবে এই খেলাটি অবশ্যই মিস করবেন না। কোন দলের সমর্থন না দিয়েও, স্রেফ ফুটবলের প্রতি ভালোবাসা থেকে খেলাটি দেখুন।

  • ইংল্যান্ড বনাম বেলজিয়াম। গ্রুপ জি। ২৮ জুন, রাত ১২টা।

ইংল্যান্ড-বেলজিয়ামের এই ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে গ্রুপ পর্বের একদম শেষ দিনে। এবং এই ম্যাচটিও আগেরটির মতই প্রায় সমান ধরণের অনিশ্চয়তা উপহার দেবে দর্শকদের মনে। যেহেতু দুই দলই এর আগে দুইটি করে ম্যাচ খেলে ফেলবে, তাই গ্রুপে তাদের অবস্থান, পরবর্তীতে রাউন্ডে তারা উঠতে পারল কি না, শেষ ষোলোয় তারা লড়বে কোন দলের বিপক্ষে- এ সমস্ত বিষয় আগে থেকেই নিশ্চিত হয়ে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে এই ম্যাচটি হবে নিছকই আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচ। কিন্তু একবার কল্পনা করে দেখুন ভিন্ন কোন দৃশ্যপটের কথা। হয়ত যেকোন এক দলের তখনও শেষ ষোলো নিশ্চিত হয়নি, এই ম্যাচের উপরই নির্ভর করে আছে তাদের ভাগ্য- তখন সেটি কতটা রোমাঞ্চ ও উত্তেজনার জন্ম দেবে। আবার অন্যরকম পরিস্থিতিও হয়ত তৈরি হলো- দুই দলই নিজেদের আগের দুইটি ম্যাচ জিতে এসেছে, তাই এই ম্যাচের ফলাফল হতেই নির্ধারিত হবে গ্রুপে তাদের অবস্থান, সর্বোপরী পরবর্তী রাউন্ডের প্রতিপক্ষ। সবমিলিয়ে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচ সবসময়ই দারুণ আকর্ষণীয় হয়ে থাকে। আর সেরকম একটি ম্যাচে যদি ইংল্যান্ড ও বেলজিয়ামের মত দুইটি দল একে অপরের বিপক্ষে লড়াই করে, তবে তো আর কথাই নেই‍!

২০১৮ বিশ্বকাপ, গ্রপ পর্ব, আর্জেন্টিনা, পর্তুগাল, স্পেন

এই ম্যাচটি আরও বেশি করে আকর্ষণীয় হবে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের ভক্তদের কাছে। কারণ এই ম্যাচেই যে তারা একসাথে দেখা পাবে তারা তাদের অনেকগুলো প্রিয় প্রিমিয়ার লিগ তারকাদের। কারা তাঁরা? তালিকায় প্রথমেই আসবে ইংল্যান্ডের হ্যারি কেইন ও বেলজিয়ামের এডেন হ্যাজার্ড। এছাড়াও থাকবেন রহিম স্টার্লিং, কেভিন ডি ব্রুইন, ডেল আলী, রোমেলো লুকাকু সহ আরও অনেকেই। তাই এ ম্যাচ চলাকালীন নিশ্চিতভাবেই গতিময় পাওয়ার ফুটবলের মেলা বসবে কালিনিগ্রাদে।

Comments
Tags
Show More

Related Articles

Close