দশটি প্রাচীন বিস্ময়, যেগুলো এখনো রহস্যই রয়ে গেছে!

হাজার বছরের বিবর্তনের ফসল আমাদের বর্তমান মানব সভ্যতা। এই সভ্যতা নিয়েই এমন কিছু আবিষ্কার বর্তমানে বিশেষজ্ঞদের সামনে এসেছে, যা আমাদের ইতিহাস নিয়ে পুনরায় ভাবিয়ে তুলছে। এত বছর পরও যেন আমাদের অনেক কিছুই আমাদের অজানা! চলুন, তারই মধ্য থেকে অবাক করা প্রাচীন দশ আশ্চর্য সম্পর্কে জেনে আসি। ১০। মিসরের অসমাপ্ত স্মৃতিস্তম্ভ অসমাপ্ত স্মৃতিস্তম্ভ নামে পরিচিত রহস্যময় এই স্তম্ভটি রয়েছে মিসরের উত্তরাঞ্চলের আসওয়ান শহরে। এই স্তম্ভের বিশেষত্ব এর উচ্চতায়- প্রাচীন মিসরের পাওয়া এখন পর্যন্ত উচ্চতম স্তম্ভ এটি।…

"দশটি প্রাচীন বিস্ময়, যেগুলো এখনো রহস্যই রয়ে গেছে!"

অদ্ভুত সব মানুষ, বিচিত্র তাদের কাজকারবার!

চলতে ফিরতে কত আজব মানুষের গল্প শুনতে হয় আমাদের। কত অদ্ভুত চরিত্র আর ঘটনাই শুনি আমরা। কারো কারো ঘটনা শুনে সিনেমার গল্প মনে হয়, কারোটা শুনলে আমরা হতভম্ব হয়ে যাই, নিশ্চুপ হয়ে পড়ি। আজকের লেখা এরকম অদ্ভুত কিছু মানুষ নিয়ে!  ১। শিংওয়ালা দাদিমা ২০১০ সালে চীনের ১০১ বছর বয়সী ঝ্যাং রুফাং তার পাড়া-প্রতিবেশী আর সাংবাদিকদের মধ্যে সাড়া ফেলে দেন যখন তারা আবিষ্কার করে যে ঝ্যাং-এর কপালে একটি শিং গজাচ্ছে! এলাকার লোকজন কুসংস্কার বশে অনেক কিছু…

"অদ্ভুত সব মানুষ, বিচিত্র তাদের কাজকারবার!"

মৃতদেহ যেন জেগে না উঠে, তাই কুপিয়ে-থেঁতলে-পুড়িয়ে ফেলা!

মধ্যযুগে ইংল্যান্ডের উত্তর ইয়র্কশায়ারের এক সমৃদ্ধ গ্রামের নাম ছিল হোয়ারেম পার্সি। ইয়র্কশায়ারের এই এলাকার হোয়ারেম পার্সির মতো হাজার হাজার গ্রামে একসময় প্রচুর মানুষ বাস করতো। কিন্তু প্লেগ, মহামারী ও কৃষিব্যবস্থার পরিবর্তনের ফলে গ্রামগুলো শেষপর্যন্ত মরুভুমিতে পরিণত হয়। যেখানে বর্তমানে শুধু কতকগুলো মন্দিরের ধ্বংসস্তুপ, অল্প কিছু বাড়িঘরের ধ্বংসাবশেষ ছাড়া আর কোন কিছুর অস্তিত্বই চোখে পড়ে না। বিশ শতকে এ এলাকায় ব্যাপক খননকার্য সংঘটিত হয়। হোয়ারেম পার্সি ছিল সে সময়ে সবচেয়ে বেশি তথ্যসমৃদ্ধ গ্রামগুলোর একটি। ১৯৬০ সালে একটি…

"মৃতদেহ যেন জেগে না উঠে, তাই কুপিয়ে-থেঁতলে-পুড়িয়ে ফেলা!"

যে মহিলা খরগোশের বাচ্চা জন্ম দিতে চেয়েছিল, কিংবা দিয়েছিল!

বাংলাদেশের গ্রামাঞ্চলে অনেক জায়গায় মানুষের পেট থেকে সাপের বাচ্চা জন্মাবার গল্প প্রচলিত আছে। কাজী নজরুলের পদ্ম-গোখরো গল্প থেকেই সম্ভবত এ ধারণার জন্ম হয়েছে। কিংবা কে জানে, কোথা থেকে এর উৎপত্তি! কিন্তু মানুষের পেট থেকে খরগোশের বাচ্চা! এ গল্প এদেশে ক’জন শুনেছে? কিন্তু সপ্তদশ শতকে ইংল্যান্ডের মেরি টোফ্ট নামের একজন মহিলা পুরো দেশের মানুষকে প্রায় বিশ্বাস করিয়েই ফেলেছিল, তার পেট থেকে খরগোশের বাচ্চা জন্মেছে। কী ছিল সেই গল্প? চলুন জেনে আসি। দক্ষিণ পূর্ব ইংল্যান্ডের একটি প্রদেশ…

"যে মহিলা খরগোশের বাচ্চা জন্ম দিতে চেয়েছিল, কিংবা দিয়েছিল!"

দেশে দেশে বাবা-মায়েদের সন্তান পালনে অদ্ভুত সব রীতি!

পৃথিবীতে এমন বাবা-মা খুঁজে পাওয়া ভার, যারা তাদের সন্তানদের ভালো চান না এবং সাধ্যমত আদর-যত্নে তাদের বড় করার চেষ্টা করেন না। জন্মের পর থেকেই সন্তানদের যথাসাধ্য আদর-যত্নে লালন-পালন করেন তারা। সন্তানদের মঙ্গল কামনায় কত অদ্ভুত পদ্ধতি অবলম্বন করেন তারা, সেসব জানলে অবাক হতে হয়! চলুন জেনে আসি বিশ্বজুড়ে সন্তান লালন-পালনের অদ্ভুত কিছু রীতি – মৌরিতানিয়ার বাবা-মায়েরা তাদের সন্তানের মুখে থুতু দেয় মৈারিতানিয়ার উওলোফ গোত্রের লোকেরা বিশ্বাস করে তাদের থুতু তাদের আশীর্বাদকে ধরে রাখে! তাই তারা তাদের…

"দেশে দেশে বাবা-মায়েদের সন্তান পালনে অদ্ভুত সব রীতি!"

ধনী হওয়ার প্রেসক্রিপশন নেই, তবে মন্ত্র আছে!

‘ধনী হবার মজার খেলা’ খেলাটি খেলতে যত মজা, জীবনে সত্যিকার অর্থে ধনী হওয়াটা কি ততটাই সোজা? বিল গেটস বলেছিলেন, ‘তুমি যদি গরীব হয়ে জন্মাও, তাহলে সেটা তোমার দোষ নয়। কিন্তু তুমি যদি গরীব হয়ে মৃত্যুবরণ করো, তাহলে সেটি অবশ্যই তোমার দোষ।’ তাহলে কী সেই প্রেসক্রিপশন? কী করলে ধনী হওয়া যাবে? এই প্রশ্নের নিশ্চিতভাবেই কোনো নির্দিষ্ট ধরাবাঁধা উত্তর নেই। তবে বিশ্বের সবচাইতে ধনী ব্যক্তিদের মাঝে কিছু ব্যাপারে ভীষণ মিল পাওয়া গেছে- ঘুরেফিরে অন্তত দশটি ব্যাপারে তারা…

"ধনী হওয়ার প্রেসক্রিপশন নেই, তবে মন্ত্র আছে!"

হিটলার সম্পর্কে অবাক করা সব তথ্য!

চার বছরের ছেলেটা পানিতে পড়ে গিয়েছিল, সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করেন এক ক্যাথলিক ধর্মযাজক। সাদা পোশাক পরা মানুষটার দারুণ ব্যবহারে মুগ্ধ হয়েছিল ছোট্ট ছেলেটা, আর কৃতজ্ঞতাবশত ঠিক করেছিল বড় হলে সেও এমন ধর্মযাজক হবে। সেই ছেলেটাই বড় হয়ে ১৯৩৯ সালে মনোনীত হয়েছিল নোবেল শান্তি পুরষ্কারের জন্যে! সমাজ-সংসারে পরোপকার আর মহানুভবতার দারুণ দৃষ্টান্ত স্থাপন করা কোন সাধুপুরুষের ছবি চোখে ভাসছে নিশ্চয়ই! ভাবনার গতিকে লাগাম দিন, সুন্দর সকাল সবসময় দারুণ একটা দিনের নিশ্চয়তা দেয় না। এই মানুষটার…

"হিটলার সম্পর্কে অবাক করা সব তথ্য!"

বুনো পশ্চিমের দুর্ধর্ষ দশ বন্দুকবাজের গল্প!

গানফাইটার বা গানস্লিঙ্গার- এগুলো হাল আমলের বেশ জনপ্রিয় শব্দ । এই ‘বন্দুকবাজ’ কিংবা ‘বন্দুকধারী দুর্বৃত্ত’-এর উৎপত্তি কিন্তু আরো আগে- বিংশ শতাব্দীতে। ‘ওয়াইল্ড ওয়েস্ট’ এর যুগে পশ্চিমে এই বন্দুকবাজদের বলা হতো গানম্যান, পিস্তলার, শ্যুটিস্ট অথবা ব্যাডম্যান। গানস্লিঙ্গারদের অবশ্য বিংশ শতাব্দীর ওয়াইল্ড ওয়েস্ট যুগে গানস্লিঙ্গার বলা হতো না। এমনকি তারা কোমরে পিস্তল রাখার জন্যে হোলস্টারও পরতেন না। গানফাইটার বা গানস্লিঙ্গার দিয়ে বরং সে যুগে বুঝাত, যারা অস্ত্রের ব্যবসা করত। চলুন, বুনো পশ্চিমের দুর্ধর্ষ দশ বন্দুকবাজের গল্প শোনা যাক!…

"বুনো পশ্চিমের দুর্ধর্ষ দশ বন্দুকবাজের গল্প!"

থমাস মিজলে- বিশ্বের সবচাইতে নিকৃষ্ট বিজ্ঞানী?

১৮৮৯ সাল। আইফেল টাওয়ার, ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল, নিনটেনডো, কোকাকোলা, এডলফ হিটলার- অনেক কিছুরই শুরু এই বছরটায়। আরেকজন মানুষেরও শুরু- ড. থমাস মিজলে, যার নাম খুব বেশি মানুষ হয়তো জানে না। অথচ তার সম্পর্কে বলতে গিয়ে ঐতিহাসিক জে আর ম্যাকনেইল বলেছিলেন- Midgley had more impact on the atmosphere than any other single organism in Earth’s history. অর্থাৎ পৃথিবীর ইতিহাসে কখনোই একা এত বড় ইফেক্ট আর কোনো একক প্রাণী ফেলতে পারেনি! তো কে ছিলেন এই থমাস মিজলে?…

"থমাস মিজলে- বিশ্বের সবচাইতে নিকৃষ্ট বিজ্ঞানী?"

ভালোবাসার পাগলামি বুঝি এমনও হয়!

প্রেম-ভালোবাসা নিয়ে কতশত পাগলামির কাহিনীই তো শোনা যায়। সেই লাইলি-মজনু থেকে শুরু করে শিরি-ফরহাদ, কতশত গল্পই তো শোনা যায়। কিন্তু যে কাহিনীটা বলতে যাচ্ছি তা এতটাই কিম্ভুৎ যে সম্ভবত তা পৃথিবীতে প্রেম নিয়ে করা সব ধরণের পাগলামিকেই ছাড়িয়ে যাবে! চলুন শোনা যাক সেই কাহিনী। জনশ্রুতি অনুসারে, কার্ল টেঞ্জলার ১৮৭৭ সালে জার্মানির ড্রেসডেনে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি অস্ট্রিয়াতে ১৯১০ সালে আবহাওয়া বিষয়ে লেখাপড়া করেন এবং প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শেষ হওয়া পর্যন্ত সেখানেই থেকে যান। দেশে ফিরে ১৯২০ সালে…

"ভালোবাসার পাগলামি বুঝি এমনও হয়!"

সত্যিই কি আছে মানুষ-খেকো গাছ?

ছোটবেলায় গল্প শুনতাম আফ্রিকার জঙ্গলে ভয়ঙ্কর মানুষ-খেকো গাছ আছে। বটগাছের মতো সেই গাছগুলোর বড় বড় লেজের মতো কাণ্ড আছে, যেগুলো দ্বারা তারা মানুষকে পেঁচিয়ে আটকে খেয়ে ফেলে! আমার মতো অনেকেই নিশ্চয় ছোটবেলায় মানুষ-খেকো গাছের গল্প শুনেছেন। আপনাদেরও কি আমার মতো জানতে ইচ্ছে করেছে আসলেই পৃথিবীতে এমন গাছ আছে কিনা? এ প্রশ্নের উত্তর জানতেই গুগলের দ্বারস্থ হলাম। তারপর? জানতে হলে পড়ুন! প্রথমে জানা যাক মানুষ–খেকো গাছের ধারণাটা প্রথম আসলো কোথা থেকে। দ্য মাদাগাস্কার ট্রি ১৮৭৪ সালে এডমন্ড স্পেনসর…

"সত্যিই কি আছে মানুষ-খেকো গাছ?"

সত্যিকারের পাইরেটসদের নিয়ে পনেরোটি অবাক করা তথ্য!

জলদস্যুদের নিয়ে নানা গল্প প্রচলিত আছে, রচিত হয়েছে ট্রেজার আইল্যান্ড-এর মতো উপন্যাস। পাইরেটদের নিয়ে যত গল্প, কাহিনী তার বেশিরভাগ মূলত ১৭, ১৮ শতকের দিকের ক্যারিবিয়ান পাইরেটদের। বিভিন্ন চলচ্চিত্রও নির্মিত হয়েছে তাদের নিয়ে। হলিউডে নির্মিত ‘পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান’ চলচ্চিত্রের খ্যাতি তো বিশ্বব্যাপী। চলুন জেনে নেওয়া যাক পাইরেটদের নিয়ে কয়েকটি অবাক করা তথ্য। ১৫। জলদস্যুদের স্বর্গ আঠারো শতকে ‘নাসাউ’ ছিল জলদস্যুদের স্বর্গ। ‘নাসাউ’ বাহামার বড় একটি শহর। বাহামার প্রায় ৭০ ভাগ মানুষ এ শহরে বাস করতো। তখন এ…

"সত্যিকারের পাইরেটসদের নিয়ে পনেরোটি অবাক করা তথ্য!"