পাঁচ মিনিটে জীবনের গল্প- শুরুটা এভাবেও করা যায়। আমাদের চারপাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা হাজার রকমের অসংখ্য মানুষ, তাদের প্রত্যেকের আলাদা আলাদা গল্প আছে বলার মতো। হয়তো সেই গল্পগুলো শোনার কেউ নেই, কিংবা আছে। তেমনই একটা গল্প তুলে এনেছেন সাদাত হোসাইন, তার ‘বোধ’ শিরোনামের শর্টফিল্মে। ভোগের বিপরীতে ত্যাগের গল্প, কিংবা অব্যক্ত কিছু ভালোবাসার গল্প নিয়েই নির্বাক একটা কথাচিত্র- বোধ!

সাদাত হোসাইনের সঙ্গে পরিচয় মূলত তার লেখা বই দিয়ে। অন্দরমহল বা আরশিনগরের স্রষ্টা ক্যামেরার পেছনেও দারুণ পটু, সেটা নিজের প্রথম কাজেই বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি। বোধ-এর কাজ হয়েছিল সম্ভবত ২০১৩ তে। একদম শুণ্য থেকে শুরু করে খানিকটা অনিশ্চয়তার মধ্যে দিয়েই ছয় মিনিটের গল্পটা ক্যামেরায় ধারণ করা হয়েছিল। মূল চরিত্রে অভিনয় করা ছেলেটার নাম মুন্না, তাকে সাদাত হোসাইন খুঁজে বের করেছিলেন বাসার পাশের বস্তি থেকে।

বোধ, সাদাত হোসাইন, শর্টফিল্ম, ব্রাইটসাইড, ইউটিউব

বোধ অদ্ভুত এক জীবনবোধের গল্প, সে জীবনে উপেক্ষা আছে, ভালোবাসাও আছে। আবার কারো কারো ক্ষেত্রে অপেক্ষার তীব্রতাও সেখানে দেখা যায়। রাস্তায় পড়ে থাকা এক টুকরো জিলাপির মধ্যেও বেঁচে থাকে কারো খানিকটা সুখস্বপ্ন, জেগে থাকে প্রিয়জনের মুখে হাসি ফোটানোর আশা। যেখানে কাকের সঙ্গে মানুষের জীবন একাকার হয়ে যায় কোথাও, যেখানে ক্ষুধার্ত শরীরে খাবারের সন্ধানে নামাটাই হয়ে যায় জীবনের লক্ষ্য, কিংবা ত্যাগের বাণী যেখানে একটা শ্রেণীর জন্যে ভোগের উপলক্ষ্য হয়ে যায়- সেটাই বোধ। হূমায়ুন আহমেদ ‘মায়া’র কথা বলেছেন অজস্রবার, সেই মায়া ব্যপারটাকেই বোধহয় সাদাত হোসাইন তুলে ধরেছেন ক্যামেরায়। যে মায়া মিশে থাকে ময়লা কাগজ মোড়ানো জিলাপির টুকরায়, কিংবা প্রিয়জনের মুখে হাসি ফোটাতে পারার আনন্দ অশ্রুতে!

কোন সংলাপ নেই এখানে, আর এটাই হয়তো সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক এই শর্টফিল্মের। একটার পর একটা দৃশ্য নিজেরাই একে অন্যের সঙ্গে যুক্ত হয়ে গল্পে পরিণত হচ্ছে, ধীরে ধীরে পরিসর বাড়ছে তার, মেলছে ডালপালা- দারুণ আকর্ষণীয় একটা ব্যপার সেটা। কয়েকটা জায়গায় ঝাঁকুনি ছাড়া ক্যামেরার কাজ ছিল চমৎকার, কানে লেগে রয়েছে শ্রুতিমধুর আবহ সঙ্গীত। আকাশের বিশাল পটভূমির সামনে আমাদের মানসিক ক্ষুদ্রতা, কিংবা ভালোবাসার বিশালত্ব তুলে ধরেছেন পরিচালক, সেটাও সুনিপুণ এক জাদুতে।

বোধ, সাদাত হোসাইন, শর্টফিল্ম, ব্রাইটসাইড, ইউটিউব

পাঁচ মিনিটের একটা শর্টফিল্ম নিয়ে পাঁচশো শব্দ হয়তো লেখা যায় না। কিন্ত ‘বোধ’ সেটা ডিজার্ভ করে। অগুনিত মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হয়েছে বোধ, ফেসবুকে হাজার হাজার বার শেয়ার হয়েছে এই শর্টফিল্ম, লক্ষ লক্ষ মানুষ দেখেছেন সেটা। ‘বোধ’ কোনো বাংলাদেশীর নির্মিত সবচাইতে প্রচারিত ফিল্ম নিঃসন্দেহে! ইউটিউবে কমপক্ষে একশোটা চ্যানেল/একাউন্ট থেকে আপলোড করা হয়েছে এটি। বিশ্বখ্যাত ওয়েব পোর্টাল ব্রাইট সাইড তাদের ওয়েবসাইটে প্রদর্শন করেছে এই শর্টফিল্ম, কোন ধরনের বুস্ট বা স্পন্সর ছাড়াই ব্রাইটসাইডে সপ্তাহ শেষে বোধে’র ভিউ ছিল নব্বই লক্ষের বেশী! এবং দর্শকদের প্রায় সবাই বাংলাদেশের বাইরের, এটাও একটা আশ্চর্য্যের ব্যপার। তৃতীয় বিশ্বের উন্নয়নশীল একটা দেশের হতদরিদ্র এক শিশুর জীবনটা তাদের আকর্ষণ করেছে, সাদাত হোসাইন দেখিয়ে দিয়েছেন, গল্প আর নির্মাণটা ভালো হলে দর্শকের মন জিতে নেয়াটা দুর্বোধ্য কিছু নয়, সে বিশ্বের যে প্রান্তের মানুষই হোন না কেন!

দিনশেষে ‘বোধ’ আমাদের সুবোধকে জাগ্রত করতে পারুক কিংবা না পারুক, পর্দায় দুর্দান্ত একটা গল্প হিসেবে পাঁচ মিনিটের এই নির্বাক কথাচিত্রটা জেগে থাকে আমাদের মানসপটে; সংযম বা ত্যাগের মহিমাটা নতুন করে ধরা পড়ে আমাদের চোখে। একটা তৃপ্তির আবেশ কিংবা খানিকটা অপ্রাপ্তির অনুভূতি গ্রাস করে মনকে। আর সেখানেই তো পরিচালকের সবটুকু সার্থকতা! 

ইউটিউবে বোধ দেখতে পাবেন এই লিঙ্কে

Do you like this post?
  • Fascinated
  • Happy
  • Sad
  • Angry
  • Bored
  • Afraid

আপনার গুরুত্বপূর্ণ মতামত দিন-