সতীর্থদের এমন ভালোবাসাই তো মাশরাফির প্রাপ্য!

টি২০ বিশ্বকাপের কোন আলো ঝলমলে উত্তেজনায় ঠাসা ফাইনাল ম্যাচ ছিল এটি? কিংবা চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনাল?  নাহ! স্রেফ একটি টি-২০ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ, যেটি বাংলাদেশ জিতলে সিরিজ ড্র হবে কেবল। পেশাদার ক্রিকেটের যুগে এরকম অসংখ্য ম্যাচ হরদমই হচ্ছে! বাংলাদেশও এরকম ম্যাচ হরদমই খেলছে, হারছে! শেষ ম্যাচটা জিতলে হয়তো সিরিজে সমতা আনার আনন্দটা পাওয়া যাবে, এইতো!  কিন্তু এরপরেও আজ জাতীয় দলের ১১ জন খেলোয়াড় স্রেফ একটা টি২০-এর জন্য মাঠে তাদের জানপ্রান ঢেলে দিল কেন? যেন এটাই তাদের জীবনের…

"সতীর্থদের এমন ভালোবাসাই তো মাশরাফির প্রাপ্য!"

আজকের গুগল ডুগলের কীর্তিমান বাংলাদেশীকে নিয়ে ৫টি তথ্য

“The technical man must not be lost in his own technology. He must be able to appreciate life, and life is art, drama, music and, most importantly, people.” উপরের উক্তিটি সেই মানুষটার যাকে গতকাল রাত ১২টা থেকে বাংলাদেশসহ মোট ১১টি দেশ থেকে গুগল ডুডল হিসেবে দেখছে। মানুষটির নাম ডঃ ফজলুর রহমান খান, ডঃ এফ আর খান! বিশ্ববরেণ্য স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ার, শিকাগোর উইলিস টাওয়ার (আগের নাম ছিল সিয়ারস টাওয়ার) নামক সুউচ্চ টাওয়ারের নির্মাতা! সবচেয়ে বড় কথা হলো,…

"আজকের গুগল ডুগলের কীর্তিমান বাংলাদেশীকে নিয়ে ৫টি তথ্য"

শুভ জন্মদিন তামিম ইকবাল খান

তামিম ইকবাল খান বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান। টেস্ট, ওয়ানডে কিংবা বা টি২০, প্রতিটিতেই সবচেয়ে বেশী রান ও সবচেয়ে বেশী সেঞ্চুরির মালিক তামিম আর যেকোনো ফরম্যাটে মাত্র ১টা রান হলেই দশ হাজারী রানসংগ্রাহক ক্লাবে প্রবেশ করবেন। বাংলাদেশের ইতিহাসে আর কারোরই এই অর্জন নেই! কিন্তু একটা ক্রিকেটারের “মূল্য” বোঝার ক্ষেত্রে পরিসংখ্যানের চেয়েও যেটি বেশি প্রভাব ফেলে, তার কোন ম্যাচে “ইমপ্যাক্ট” ফেলার ক্ষমতা; ম্যাচ জেতাতে অবদান রাখা নয়, ম্যাচ জিতিয়েই ফেরার ক্ষমতা! সেখানেও তামিম ইকবাল অনন্য। বাংলাদেশের যে…

"শুভ জন্মদিন তামিম ইকবাল খান"

স্বাগতম মোসাদ্দেক!

আফগানিস্তানের সাথে অভিষেক ম্যাচে একটা স্কুপ শটে ছক্কা মেরেছিল ছেলেটা। ধারাভাষ্যকাররা বলে উঠেছিল, ‘শট অফ দা ম্যাচ!’ নিউজিল্যান্ডের সাথে প্রথম টি-২০তে বুক বরাবর আসা ফার্গুসনের একটা বাউন্সারকে দুই স্টেপ লেগে সরে গিয়ে ঠান্ডা মাথায় আরও একটা ছক্কা! ড্যানি মরিসনের চিৎকার, ‘শট অফ দা ম্যাচ!’ ওই দুইটি ছক্কা যদি হয় সৃষ্টিশীলতা আর উপস্থিত বুদ্ধির পরিচায়ক, আজকে হেরাথকে একেবারে ক্রিকেটীয় ব্যাকরণ মেনে যে ছক্কাটা মেরে অভিষেক টেস্টের সব নার্ভাসনেস এক ফুৎকারে উড়িয়ে দিলেন, সেটা তাঁর ‘ব্যাটিং বেসিকস’-এর মনোযোগী…

"স্বাগতম মোসাদ্দেক!"

‘ওয়ানডেতে লঙ্গার ভার্সনের মতো রান দিয়ে উইকেট কেনার লাক্সারিটা নেই’- সানজামুল

এগিয়ে চলো ডেস্ক: প্রথমেই অভিনন্দন! সানজামুল: অসংখ্য ধন্যবাদ (হাসি)। – প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেলেন। কেমন অনুভূতি হচ্ছে? সানজামুল: কী আর বলব! খবরটা শুনে এত খুশি লাগছে! আসলে সব প্লেয়ারেরই তো আল্টিমেট ড্রিম থাকে জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার। সেই স্বপ্নটা পুরণ হলো। আমি এখনো “শক” এর মধ্যে আছি আসলে, কী বলব বুঝে উঠতে পারছি না। বলা যায় খুশিতে আত্মহারা! – সাত বছর ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলার পরে জাতীয় দলে ডাক। এই সময়টায় কখনো কি হতাশ কাজ করেছে? …

"‘ওয়ানডেতে লঙ্গার ভার্সনের মতো রান দিয়ে উইকেট কেনার লাক্সারিটা নেই’- সানজামুল"

নামটা মাহমুদউল্লাহ্‌ বলেই আক্ষেপটা বেশি

“Mahmudullah comes in… classy player, who could forget those two back to back centuries in the world cup??” সেই ২০১৫ বিশ্বকাপের পর থেকেই ধারাভাষ্যকারদের মুখ থেকে এই কথা ঘুরেফিরে কতবার যে বের হয়েছে মাহমুদউল্লাহ্‌ ব্যাটিংয়ে নামার সময়! হোক সেটা ওয়ানডে, টেস্ট কিংবা টি-২০। একজন ক্রিকেটপ্রেমী হিসেবে, বাংলাদেশের সমর্থক হিসেবে শুনতে বেশ ভালো লাগে কথাটা। কিন্তু খটকাও যে লাগে ইদানিং!  ওয়ানডেতে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সেই মহাকাব্যিক দুই সেঞ্চুরী বাংলাদেশ সারা জীবন ভুলতে পারবে না। অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের…

"নামটা মাহমুদউল্লাহ্‌ বলেই আক্ষেপটা বেশি"

আক্ষেপ যখন টেস্টে আমাদের পেসারদের অসাড়তা!

উমেশ যাদব, স্টার্ক কিংবা হেজেলউডরা “স্পিনের মাইনফিল্ডে”ও সাফল্য পান। আর আমাদের কামরুল রাব্বী, রুবেল, আল আমিন, তাসকিনরা নরমাল ফ্ল্যাট পিচ হলেই টেস্টে নিজেদের হারিয়ে ফেলেন! অজুহাত হিসেবে “আমাদের পেসাররা তো আনফেভারেবল পিচ কন্ডিশনে…”- কথাটা মাথায়ও আসার আগেই আবারো কোটেশন মার্কের কন্ডিশন দুটো পড়ে নিন দয়া করে। “পিচের ক্র্যাকে পেসারদের সুবিধা” জাতীয় কথা বলে লাভ নেই। ইংল্যান্ড সিরিজে কামরুল ইসলাম রাব্বী জানতেন না যে পিচের ক্র্যাকে বল ফেলে কাট আদায় করা যায়? ধরা যাক, এই স্ট্র্যাটেজি…

"আক্ষেপ যখন টেস্টে আমাদের পেসারদের অসাড়তা!"

মুশফিকের সেঞ্চুরি-পঞ্চক!

উমেশ যাদবকে ফ্লিক করে অসাধারন একটি চার! মুশফিকুর রহিম পৌঁছে গেলেন তাঁর ক্যারিয়ারের পঞ্চম টেস্ট সেঞ্চুরিতে! টেকনিক্যালি বাংলাদেশের সবচাইতে সলিড ব্যাটসম্যান মুশফিক, এটা তর্কাতীতভাবে সত্য। তাঁর হাতের শটসের যেমন বৈচিত্র্য আছে, বৈচিত্র্য আছে তাঁর করা ৫টি টেস্ট সেঞ্চুরিতেও! এই ৫টি সেঞ্চুরি তিনি করেছেন ৫টি ভিন্ন ভিন্ন দেশে, ৫টি ভিন্ন ভিন্ন কন্ডিশনে, চারটি ভিন্ন ভিন্ন দেশের বিপক্ষে। চট্টগ্রাম থেকে শুরু, এরপর গল, কিংসটাউন, ওয়েলিংটন এবং সর্বশেষ ভারতের হায়দ্রাবাদ। মুশি যেন পর্যটক, ভিন্ন ভিন্ন দেশে ঘুরে সুভেন্যির…

"মুশফিকের সেঞ্চুরি-পঞ্চক!"

যে পাইলট একাই লড়ে জিতেছিলেন ৩০টি নাৎসি যুদ্ধবিমানের সাথে!

আকাশযানে করে উড়তে উড়তে একাই প্রতিপক্ষের পর প্রতিপক্ষ ঘায়েল করে যাচ্ছেন হিরো, কিন্তু তাঁর কোন ক্ষতি কেউ করতে পারছে না! রুপালি পর্দার “স্টার ওয়ার্স” জাতীয় চলচ্চিত্র বা প্লেস্টেশনের ভিডিও গেমে অহরহ দেখা মেলে এসমস্ত কীর্তির। কিন্তু এইসব কল্পনা কিন্তু বাস্তব থেকেই অনুপ্রানিত হয়! যুদ্ধক্ষেত্রে একা হাতে শত্রু ঠেকিয়ে সহযোদ্ধাদের গোটা দলকে প্রানে বাঁচিয়ে দেওয়ার ঘটনা ইতিহাসে কম নয় এবং প্রতিটা ঘটনাই অসম্ভব বীরত্ব এবং অকুতোভয়তার সাক্ষ্য বহন করে! যেমন বীরশ্রেষ্ঠ মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীর বা মুন্সী আব্দুর…

"যে পাইলট একাই লড়ে জিতেছিলেন ৩০টি নাৎসি যুদ্ধবিমানের সাথে!"

রিটার্ন অফ দ্য কিং!

ছয় মাস ভুগিয়েছে কনুইয়ের চোট। এই মাসের ২২ তারিখে মাঠে ফিরেছিলেন নর্দার্ন্সের হয়ে লিস্ট এ ক্রিকেটে, ১০৩ বলে অপরাজিত ১৩৪* করে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন। আর সর্বশেষ আন্তর্জাতিক ওয়ানডে খেলেছিলেন গত বছরের জুনে! কিন্তু ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর জায়গা থেকে তাঁর নাম এখনো সরাতে পারেনি কেউ! ৭ মাস পর আন্তর্জাতিক ম্যাচ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, টি২০ ফরম্যাট… ৪৪ বলে দলীয় সর্বোচ্চ সহজ সাবলীল ৬৩ করে মাথা নাড়তে নাড়তে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন, এবিডি ভিলিয়ার্স যেন…

"রিটার্ন অফ দ্য কিং!"

ছেলেদের আক্ষেপের দিনে মেয়েদের দক্ষিণ আফ্রিকা বধ!

বিদেশে হারছে পুরুষ দল। ভোর চারটার সময় উঠেও খবর রাখছি সবাই, সবার মুখ ভার। কিন্তু দেশের মাটিতে যে আমাদের নারী দলের বাঘিনীরা একটা বড় বিজয় অর্জন করে আনলো আজ, সেই খবর রেখেছেন কতজন? শুনে যান আমাদের টাইগ্রেসদের আজকের রুদ্ধশ্বাস দক্ষিন আফ্রিকা বধের কাব্য! র‍্যাঙ্কিংয়ের ছয় নম্বরে থাকা প্রতিপক্ষ দক্ষিন আফ্রিকা নারী দল রীতিমত বিশ্ব নারী ক্রিকেটের পরাশক্তি! কিন্তু তাও কক্সবাজার স্টেডিয়ামে সফরকারী দলকে গত ম্যাচে প্রায় হারিয়েই দিতে বসেছিল বাংলাদেশ! চিরায়ত ব্যাটিং ব্যর্থতায় শেষটা যদিও…

"ছেলেদের আক্ষেপের দিনে মেয়েদের দক্ষিণ আফ্রিকা বধ!"

ওয়েলিংটনের বাতাসের বিপরীতে তামিম-মমিনুলের শাসন

গড়ে ১৩০ কিমি বেগে ছুটে যাওয়া উত্তরীয় বাতাস, ঘাসে ভরা পিচ, আলোকস্বল্পতা, কিছুক্ষন পরপর বৃষ্টির উপদ্রব! ব্যাটিং করার জন্য মোটেই আদর্শ কোন মঞ্চ নয় বৈকি! ওয়েলিংটনের বেসিন রিজার্ভের মাঠ টেস্টের প্রথম দিনে সারাজীবনই ব্যাটিং দলের পরীক্ষা নিয়েছে! খোদ নিউজিল্যান্ড ঘরের দল হয়েও এই মাঠের বিগত দুই টেস্টের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে অলআউট হয়েছিল ১৮৩ ও ২২১ রানে! টিকতে পারেনি দুই সেশনও… আর উপমহাদেশের দলগুলির জন্য তো এই মাঠ বরাবরই বধ্যভুমি! এই বধ্যভুমিতে বাংলাদেশের জন্য…

"ওয়েলিংটনের বাতাসের বিপরীতে তামিম-মমিনুলের শাসন"