সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ পর্বতারোহীর গল্প | পর্ব ১

সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ পর্বতারোহী কে? এই প্রশ্নের উত্তরে কোন পর্বতারোহী দ্বিতীয়বার না ভেবেই বলবেন রেইনহোল্ড মেসনার! ১৯৪৪ সালে জন্ম নেওয়া ইতালীয় পর্বতারোহী। চিকিৎসা বিজ্ঞানকে ভুল প্রমাণ করে যিনি প্রথম মানুষ হিসেবে অক্সিজেন ছাড়াই উঠে গিয়েছিলেন এভারেস্টের চূড়ায়, সাল ১৯৭৮। তারপর চিন্তা করলেন বর্ষাকালে আরেকবার এভারেস্টে উঠে দেখা যেতে পারে অক্সিজেন ছাড়া! উন্মাদীয় চিন্তা ভাবনা! কিন্তু ২ বছর পর আবারো প্রথম মানুষ হিসেবে এভারেস্টে উঠলেন অক্সিজেন ছাড়া, বর্ষাকালে। এরপর তিনি ভাবলেন অক্সিজেন ছাড়া সবগুলো ৮ হাজার মিটারী…

"সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ পর্বতারোহীর গল্প | পর্ব ১"

হিমালয়কে পোষ মানিয়েছিলেন যিনি…

এভারেস্টকে বলা হয় পৃথিবীর তৃতীয় মেরু। এডমন্ড হিলারি এবং তেনজিং নোরগে- এই দুজন প্রথম এভারেস্টে উঠেছিলেন। কিন্তু সাদা চামড়ার হিলারির নামের সাথে পরে ‘স্যার’ যোগ হলেও নেপালী তেনজিং এই উপাধি পাননি। এই হলো চামড়াপ্রথা! যাই হোক, হিলারীদের আরো ২৯ বছর আগেই একজন এভারেস্টে উঠেছেন বলে ধারণা করা হয়। ওটা জর্জ ম্যালোরি! আর ব্যাপারটা পুরোটাই রহস্য আর রোমাঞ্চে ঘেরা।   ম্যালোরি প্রথম এভারেস্টে গিয়েছিলেন ১৯২১ সালে। দেখে শুনে ব্যর্থ হয়ে ফিরে এসেছেন। পরের বছর আবারও গিয়েছেন।…

"হিমালয়কে পোষ মানিয়েছিলেন যিনি…"

“ভাবুন, উপরে একটাই আকাশ”

ন্যায় অন্যায় যাই হোক নিজেদের ভিতর মারামারি করলে লাভ হয় তৃতীয় পক্ষের। একসময় সিকিম আর নেপালের ভিতর ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া চলতো। এজন্য সিকিমের রাজা ইংরেজদের সাথে মৈত্রি চুক্তি করে ফেললো। নেপালিরা আক্রমণ করলে ইংরেজরা এসে তাদেরকে ঠেঙ্গাবে সিকিমের হয়ে। দার্জিলিং তখনো সিকিমের অংশ। দার্জিলিংকে এই অঞ্চলের স্বর্গ বলা যায়। লর্ড বেন্টিংক যখন বাংলার গভর্ণর, তখন আরো একবার নেপাল সিকিম মারামারি লেগে গেলো। বেন্টিংক সাহেব ঐখানে দুইজন অফিসার পাঠাইছে, যা দেখে আয়। তারা চলে গেছে দার্জিলিং।…

"“ভাবুন, উপরে একটাই আকাশ”"

দুই চাকায় বাংলাদেশ

দেশের একমাথা থেকে সাইকেল নিয়ে দেশের অন্য মাথায় যাওয়ার ইচ্ছেটা অনেকদিনের। অবশেষে গত বছর অক্টোবরের শুরুতে স্বপ্নটা পূরণ হয়েছে। তেতুলিায়ার বাংলাবান্ধা সীমান্ত থেকে টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ পর্যন্ত। পথে পথে এগারো দিন। সাইকেল রাইডের সময় পথে পথে মানুষের নানান প্রশ্ন, মন্তব্য, আর কৌতুহল মেটাতে হতো। সবচেয়ে কমন প্রশ্ন হচ্ছে ‘ভাই আপনে রাইডটা কেন দিচ্ছেন?’ এর কোন উত্তর হয়না। সেই নীলফামারী রংপুর থেকে শুরু করে পুরো পথে অনেকেই জিজ্ঞেস করেছে সরকার আমাকে ঘোরার জন্য টাকা দেয় কিনা।…

"দুই চাকায় বাংলাদেশ"